Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

৪র্থ বারের মতো চিটাগাং চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম

৪র্থ বারের মতো চিটাগাং চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম
মাহবুবুল আলম / ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
চট্টগ্রাম


  • Font increase
  • Font Decrease

দ্য চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সর্বসম্মতিক্রমে মাহবুবুল আলম সভাপতি, ওমর হাজ্জাজ সিনিয়র সহ-সভাপতি ও তরফদার মো. রুহুল আমিন সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।

সোমবার (২০ মে) নির্বাচন কমিশনের চেয়্যারম্যান শাহজাদা ফৌজুল মবিন খানের সভাপতিত্বে ও একেএম আক্তার হোসেনের পরিচালনায় ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারস্থ চেম্বার কার্যালয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, পরিচালক নির্বাচনের লক্ষ্যে গত ২১ মার্চ ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের নির্ধারিত সময়সীমা গত ৫ মে দুপুর ১টায় শেষ হয়।

ওই সময়ের মধ্যে অর্ডিনারির ক্যাটাগরিতে ১২টি পদের বিপরীতে ১৪জন প্রার্থী, অ্যাসোসিয়েট গ্রুপে ছয়টির বিপরীতে ছয়জন, টাউন অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপে তিনটি পদের বিপরীতে তিনজন এবং ট্রেড গ্রুপে তিনটি পদের বিপরীতে তিনজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন, যা যাচাই-বাছাইয়ের পর নির্বাচন কমিশন কর্তৃক বৈধ বলে গৃহীত হয়।
পরবর্তীতে রোববার (১৯ মে) মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারে শেষ দিনে অর্ডিনারি ক্যাটাগরিতে দুইজন তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করায় নির্বাচন বোর্ড অবশিষ্ট প্রার্থীবৃন্দকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

নব-নির্বাচিত সভাপতি মাহবুবুল আলম সিআইপি চতুর্থ বারের মতো দ্যা চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।

এম আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম ১৯৫৮ সালে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার গহিরা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি খ্যাতনামা ব্যবসায়ী ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক প্রয়াত নুরুল আলমের জ্যেষ্ঠ সন্তান।

মাহবুবুল আলম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন এবং অধ্যয়নকালে চাকসুর সমাজ কল্যাণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

মাহবুবুল আলম ২০০২-২০০৪ মেয়াদে প্রথমবার, ২০০৫-২০০৬ মেয়াদে দ্বিতীয় বারের মতো চিটাগাং চেম্বার পরিচালক, ২০০৭-২০০৮ মেয়াদে সহ-সভাপতি, ২০১১-২০১২ মেয়াদে সিনিয়র সহ-সভাপতি, ২০১৩-২০১৪, ২০১৫-২০১৬ এবং ২০১৭-২০১৯ মেয়াদে সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি বর্তমানে সার্ক চেম্বারের ভাইস প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী দফতর সংশ্লিষ্ট বিজনেস ইনিশিয়েটিভ লিডিং ডেভেলাপমেন্টের (বিল্ড) ট্রাস্টি চেয়ারম্যান, এফবিসিসিআই’র প্রাক্তন সহ-সভাপতি ও পরিচালক, চেম্বার কর্তৃক মনোনীত সিডিএ’র সদস্য এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন বাংলাদেশ ইকনোমিক জোন অথরিটির গভর্ণিং বোর্ডের সদস্য, ইন্টারন্যাশনাল চেম্বার অব কমার্স বাংলাদেশ’র পরিচালক, বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইন্সটিটিউট’র এক্সিকিউটিভ বোর্ড মেম্বার ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন’র সাধারণ সম্পাদক। মাহবুবুল আলম ক্রাউন স্টীল লিঃ, এম. আলম গ্যাস স্টেশন লিঃ এবং আনোয়ারা আলম ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান। এছাড়া তিনি এশিয়া ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড’র ভাইস চেয়ারম্যান, সার্জিস্কোপ হসপিটাল লিঃ’র ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান, ডায়মন্ড লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর চেয়ারম্যান, এ্যাকুয়া ফুডস লিঃ’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক। সমাজসেবী ও বিদোৎসাহী মাহবুবুল আলম দালাইনগর হাই স্কুল পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান, এনায়েত বাজার মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও গহিরা আলিয়া মাদ্রাসার গভর্ণিং বডির ভাইস চেয়ারম্যানসহ অসংখ্য শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন :

এএসপির বাড়িতে পুলিশের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি!

এএসপির বাড়িতে পুলিশের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি!
খুলনা পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার, ছবি: সংগৃহীত

খুলনায় পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের ফায়ারিংয়ের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি পার্শ্ববর্তী এক এএসপির বাসার সিলিং ফ্যানে আঘাত করেছে।

রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুরে খুলনার ফুলবাড়িগেট কেডিএ আবাসিকের ৬৫ নম্বর বাড়ির দ্বিতীয় তলায় এএসপি’র বাসাতে এ ঘটনা ঘটে। খুলনার পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার (পিটিসি) থেকে গুলিটি আসে। লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলিটি এএসপির বাসার রান্না ঘরের জানালায় ওপর দিয়ে গ্লাস ভেঙে ডাইনিং রুমের সিলিং ফ্যানে লাগে।

খুলনা জেলা পুলিশের এএসপি আনিসুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বার্তাটোয়েন্টিফোর. কম কে বলেন বলেন, 'খুলনা পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার থেকে আমার বাসার দূরত্ব এক কিলোমিটার। দুপুরের দিকে বিকট শব্দে একটি গুলি আমার বাসার রান্না ঘরের জানালায় মাথার ঠিক ওপর দিয়ে গ্লাস ভেঙে ডাইনিং রুমের সিলিং ফ্যানে লাগে। তখন ডাইনিংয়ে আমার দুই সন্তান ছিল। গুলির শব্দে বাসার সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে আমি বাসায় ছুটে যাই। এরপর খানজাহান আলী থানা পুলিশ বাসায় এসে গুলিটি জব্দ করে নিয়ে যায়।'

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মহানগরীর খানজাহান আলী থানা সংলগ্ন পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারে ফায়ারিং রেঞ্জে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) ফায়ারিং ট্রেনিং ছিল। ওই ট্রেনিং থেকেই রাইফেলের গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে ফুলবাড়িগেট কেডিএ আবাসিকের ৬৫ নম্বর বাড়ির দ্বিতীয় তলায় এএসপি’র বাসাতে আঘাত হানে।

মমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত যুবকের মৃত্যু

মমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত যুবকের মৃত্যু
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রাসেল (৩৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায় চরনিকি এলাকায়।

রোববার (১৮ আগস্ট) রাত সাড়ে ৭ টার দিকে তিনি মারা যান। হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. এ.বি.এম. শামসুজ্জামান সেলিম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ওই যুবক ঢাকায় থাকতেন। সেখানেই তিনি ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ঈদের ছুটিতে বাড়িতে যাওয়ার পর তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চারদিন সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার পর রোববার বেলা ৩টার দিকে তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে এসে ভর্তি হন। পরে এখানে চিকিৎসাধীন অবস্থান রাত সাড়ে ৭ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এ নিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুইজনের মৃত্যু হল। এর আগে গত ১১ আগস্ট কিশোরগঞ্জের ইটনা ডিগ্রি কলেজের ছাত্র ফরহাদ মারা যান।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র