Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

বিআরটিসি’র ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে চলবে এক হাজার ৮৯ বাস

বিআরটিসি’র ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে চলবে এক হাজার ৮৯ বাস
ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে ঘরমুখী যাত্রীদের নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছে দিতে বিআরটিসি’র ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে এক হাজার ৮৯টি বাস চলবে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) সূত্রে জানা গেছে, সারাদেশে এক হাজার ৮৯টি বাসের মধ্যে ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে ঢাকা শহরের মধ্যে ৬৪৯টি বাস এবং ৩৯০টি বাসের মাধ্যমে যাত্রীদের সেবা দেওয়া হবে। এছাড়া জরুরি প্রয়োজন মেটাতে ৫০টি বাস স্ট্যান্ডবাই রাখা হবে।

ভারতীয় ঋণ কর্মসূচির আওতায় ৫০০ ট্রাকের মধ্যে ৪৬৮টি এসে পৌঁছেছে। এছাড়াও ৬০০ বাসের মধ্যে ১৭৯টি এসে পৌঁছেছে।

এবারের বিআরটিসি'র ঈদ স্পেশাল সার্ভিস চলবে ২৭ মে থেকে ১০ জুন পর্যন্ত। টিকিট বিক্রি শুরু হবে ২০ মে থেকে।

এ বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, বিআরটিসি’র ৫০০ ট্রাকের মধ্যে ৪৬৮টি চলে এসেছে। ৬০০টি বাসের মধ্যে ১৭৯টি বেনাপোলের কাছাকাছি চলে এসেছে। আমরা আশা করছি, শিগগিরই চলে আসবে। নতুন বিআরটিসি বাস আসায় বাসের শূন্যতা পূরণ হবে।

বিআরটিসি’র চেয়ারম্যান ফরিদ আহমদ ভূঁইয়া জানান, সরকারের আমদানি করা নতুন দেড়শ’ বাসসহ মোট এক হাজার ৮৯টি বাস ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে ব্যবহার করা হবে। এর মধ্যে ৬৪৯টি বাস ঢাকা থেকে এবং ৩৯০টি ঢাকার বাইরে বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় চলাচল করবে। কোথাও কোনো বাস বিকল হলে বা দুর্ঘটনায় পড়লে সেখানে সরবরাহ করার জন্য ৫০টি বাস সংস্থায় রিজার্ভ থাকবে।

আগামী ২০ মে থেকে বিআরটিসি’র সংশ্লিষ্ট ডিপো থেকে ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে এবং ১০ জুন পর্যন্ত ঈদ সার্ভিসের এসব বাস চলাচল করবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ১০ বাড়িওয়ালাকে জরিমানা

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ১০ বাড়িওয়ালাকে জরিমানা
ছবি: সংগৃহীত

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ১০ বাড়ির মালিককে জরিমানা করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার (২১ জুলাই) বাড়ি বাড়ি গিয়ে এডিস মশার লার্ভা ধ্বংস করতে শুরু করেছে ডিএসসিসি। মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের ঘোষণা অনুযায়ী এর পর দিন থেকে নির্মাণাধীন ভবনে অভিযান শুরু হয়। সোমবার থেকে মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) পর্যন্ত ১০ বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা বা প্রজনন স্থান পাওয়ায় বাড়ির মালিকদের মোট এক লাখ ৯০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ পর্যন্ত ডিএসসিসি নিয়ন্ত্রণাধীন পাঁচটি অঞ্চলে এক হাজার ৪২১টি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে এডিসের লার্ভা ধ্বংস করা হয়েছে।

১৫ দিনের এ কার্যক্রম চলাকালে প্রতিটি ওয়ার্ডে প্রতিদিন গড়ে এক হাজারর ৭১০টি বাড়িতে অভিযান চালানোর ঘোষণা দিয়েছেন মেয়র। অর্থাৎ ১৫ দিনে মোট ২৫ হাজার বাড়ির এডিস মশা ধ্বংস করা হবে।

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি প্রশাসনকে মানুষের কাছে নিয়েছে’

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি প্রশাসনকে মানুষের কাছে নিয়েছে’
ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার

বাংলাদেশকে আগামী দিনের ডিজিটাল পৃথিবীর নেতৃত্বের উপযোগী করে গড়ে তুলতে জনবান্ধব প্রশাসন অপরিহার্য বলে মন্তব্য করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি প্রশাসনকে মানুষের কাছে নিতে সক্ষময় হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাজধানীতে ডাক অধিদফতর মিলনায়তনে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস-২০১৯ উপলক্ষে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।

‘সরকারে যারা কাজ করেন তারা জনগণের সেবক’— জনবান্ধব প্রশাসন গড়ে তুলতে জাতির পিতার ভাষণের এই উদ্ধৃতি তুলে ধরে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, জনগণ যাতে বিনা ভোগান্তিতে এবং সহজে সরকারি সেবা পান সেই লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রজ্ঞাবান দৃরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতৃত্বে সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠাসহ যুগান্তকারী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের সুপার হাইওয়ে নির্মাণসহ বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এই বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারীদেরকেও ডিজিটাল হতে হবে। এই ক্ষেত্রে কিছুটা সীমাবদ্ধতা থাকতে পারে কিন্তু ডিজিটাল যুগে বাস করে এনালগ থাকার সুযোগ নেই।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী নিজ বিভাগের কর্মকর্তাদের আগামী দিনের প্রযুক্তির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিজেদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ডিজিটাল যুগে নতুন আরেকটি যুগ শুরু হয়েছে আর তা হলো বাংলাদেশ ফাইভ-জিতে যাচ্ছে। সামনের দিনের প্রযুক্তি একটি নতুন সভ্যতার সুযোগ দেবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস। এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শাহাদাৎ হোসেন ও মো. আজিজুল ইসমান এবং ডাক বিভাগের মহাপরিচালক জনাব সুধাংশু সেখর ভদ্র উপস্থিত ছিলেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র