Barta24

বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

English

সাংবাদিকদের ওপর হামলা

ক্যামেরা উদ্ধার হলেও গ্রেফতার হয়নি হামলাকারীরা

ক্যামেরা উদ্ধার হলেও গ্রেফতার হয়নি হামলাকারীরা
স্বপ্নতরী এগ্রো সার্ভিসেস লিমিটেড, ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
রংপুর
বার্তা ২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিকদের উপর হামলা চালানো সন্ত্রাসীদের সনাক্ত করেছে পুলিশ। ছিনতাই হওয়া ক্যামেরা উদ্ধার হলেও গ্রেফতার হয়নি চিন্থিত সন্ত্রাসীরা।

তবে হামলাকারীদের নাম পরিচয় নিশ্চিত হওয়ায় তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বীরগঞ্জ থানা পুলিশের অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) সাকিলা পারভীন। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে বারোটায় বার্তা২৪.কমকে তিনি এই তথ্য জানান।  

ওসি সাকিলা পারভীন বলেন, ‘হামলার শিকার সাংবাদিকরা লিখিত ও মৌখিক অভিযোগ করেছেন। আমরা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছি। ইতোমধ্যে পুলিশ ছিনতাই হওয়া ক্যামেরাটি উদ্ধার করেছে। তবে হামলাকারীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/19/1555662517010.jpg

ক্যামেরা উদ্ধার হলেও সন্ত্রাসীরা গ্রেফতার হয়নি কেন, এর জবাবে ওসি জানান, ‘আমরা হামলাকারীদের কাছ থেকে ক্যামেরা উদ্ধার করিনি। সুজালপুর ইউনিয়নের একটি গাছ তলায় পড়ে থাকা ভিডিও ক্যামেরাটি উদ্ধার করেছি। ’

ক্যামেরাটি কোন গ্রাম থেকে উদ্ধার হয়েছে এবং কারা সেখানে রেখেছেন, এই প্রশ্নের উত্তরে ওসি সাকিলা পারভীন বলেন, ‘আপনি আমার সাথে পরে কথা বলেন। আমি ব্যস্ত আছি। পারলে ডিবিসি নিউজ এর প্রতিনিধি এবং স্বপ্নতরীর লোকজনের সাথে কথা বলুন। তারাই ভালো বলতে পারবে।’

এসময় তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকদের জিডি ও দাবির প্রেক্ষিতে পুলিশের পক্ষ থেকে সব ধরণের আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ক্যামেরা যখন উদ্ধার হয়েছে। তখন আসামিরাও গ্রেফতার হবে।’

এদিকে, সন্ত্রাসী হামলায় শিকার তিন সাংবাদিকদের মধ্যে গুরুতর আহত ডিবিসি নিউজ এর রংপুর স্টাফ রিপোর্টার নাজমুল ইসলাম নিশাত বার্তা২৪.কমকে জানান, ‘সাতজনের নাম উল্লেখ করে ২৫ জনের ব্যাপারে বীরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। পুলিশ এখন পর্যন্ত কোনো আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তবে ক্যামেরা উদ্ধার হয়েছে বলে আমাকে ওসি বীরগঞ্জ নিশ্চিত করেছেন। ’

এ ঘটনায় রংপুর প্রেসক্লাব, রিপোর্টার্স ক্লাব, রিপোর্টার্স ইউনিটি, ভিডিও জার্নালিস্টস এসোসিয়েশন, ফটো জার্নালিস্টস এসোসিয়েশনসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবি করেছেন। 

শনিবার (২০ এপ্রিল) রংপুর প্রেসক্লাব চত্বরে সাংবাদিক সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের কর্মসূচি দিয়েছেন স্থানীয় সাংবাদিক নেতারা।

উল্লেখ্য, ডেসটিনির পিএসডিপ্রাপ্ত মানিক চন্দ্র বর্মণ নামে এক ব্যক্তি দিনাজপুরের বীরগঞ্জে স্বপ্নতরী এগ্রো সার্ভিসেস লিমিটেড এর ব্যানারে রংপুর বিভাগের চার জেলায় বিভিন্ন লোভনীয় প্যাকেজে টার্কি মুরগির খামারি প্রজেক্ট ব্যবসা চালু করেন। এতে বিভিন্ন মেয়াদে প্রায় ১২০০ খামারি অর্ধশত কোটি টাকার প্যাকেজ গ্রহণ করেন। নির্দিষ্ট মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পর স্বপ্নতরী কর্তৃপক্ষ টাকা ফেরত দিতে টালবাহানা শুরু করে।

এ ঘটনার প্রতিবেদন তৈরি করতে গেলে (১৭ এপ্রিল) বার্তা২৪.কম এর রংপুর স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ফরহাদুজ্জামান ফারুক, ডিবিসি নিউজের রংপুর স্টাফ রিপোর্টার নাজমুল ইসলাম নিশাত ও ক্যামেরা পারসন মহসীন আলীর উপর স্থানীয় সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ক্যামেরা ভাঙচুর ও ছিনতাই করে নেন।

আপনার মতামত লিখুন :

রুয়েট ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় মামলা

রুয়েট ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় মামলা
ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী নগরীতে অটোরিকশায় বখাটেদের যৌন হয়রানির শিকার রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) সেই ছাত্রী মামলা করেছেন। নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় দায়েরকৃত মামলায় অজ্ঞাতনামা পাঁচজনকে আসামি করেছেন তিনি।

বুধবার (২১ আগস্ট) দুপুরে রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া মডের থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ এ তথ্য জানান। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী রুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী।

ছাত্রীর অভিযোগ, সোমবার (১৯ আগস্ট) বিকেলে রুয়েটের সামনে থেকে অটোরিকশায় ওঠার পর তালাইমারী থেকে অটোচালক তার পরিচিত চার যুবককে ওই অটোতে তুলেন। পরে তালাইমারী থেকে নগরভবন পর্যন্ত ওই যুবকরা তাকে হয়রানি করেন। একপর্যায়ে তিনি চিৎকার করলে নগরভবনের সামনে তাকে চলন্ত অটো রিকশা থেকে ফেলে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: রুয়েট ছাত্রীকে উত্যক্ত করে অটো থেকে ফেলে দিল ৪ যুবক!

ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভুক্তভোগী ছাত্রী থানায় এজহার দাখিল করেন। পরে সেটি মামলা আকারে গ্রহণ করা হয়। মামলায় অজ্ঞাতনামা পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে। এদের মধ্যে একজন অটোরিকশা চালক এবং অন্যরা তার পরিচিত কেউ।’

তিনি আরও বলেন, ‘যে সড়কে ঘটনাটি ঘটেছে, ইতোমধ্যে সেই সড়কের পাশে থাকা ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। আমরা আসামিদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছি। জড়িতদের চিহ্নিত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

আরও পড়ুন: রুয়েট শিক্ষককে লাঞ্ছিত ও স্ত্রীকে যৌন হয়রানি, গ্রেফতার ৩

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) উপ-কমিশনার আবু আহাম্মদ আল মামুন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘রুয়েটের ওই ছাত্রী যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার পর বিষয়টি আমাদের নজরে আসে। এরপর ওই শিক্ষার্থীকে অভিভাবকসহ থানায় ডাকা হয়। মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) তাকে মহানগর ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এরপরই থানায় একটি মামলা দায়ের করার সিদ্ধান্ত নেন ভুক্তভোগী।’

গত ১০ আগস্ট রাজশাহী নগরীতে স্ত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করে বখাটেদের হামলার শিকার হন রুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. রাশিদুল ইসলাম। ওই ঘটনায় রাজশাহীজুড়ে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা সৃষ্টি হয়। সেই ঘটনার রেশ না কাটতেই অটোতে তুলে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠায় প্রশাসনের গাফিলতির অভিযোগ ওঠে। তবে রুয়েট শিক্ষক দম্পতিকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সহপাঠীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

সহপাঠীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার
অভিযুক্ত শিক্ষার্থী শিঞ্জন রায়, ছবি: সংগৃহীত

খুলনায় সহপাঠীকে ধর্ষণের অভিযোগে নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়‌ের শিক্ষার্থী শিঞ্জন রায়কে (২৫) সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার (২১ আগস্ট) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জানানো হয়, সহপাঠীকে ধর্ষণ ও গর্ভবতী করার অভিযোগে নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিঞ্জন রায়কে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। একইসঙ্গে ঘটনার তদন্তে ৩ সদস্যর কমিটি গঠিত হয়েছে।

নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা শাখার উপাচার্য প্রফেসর ড. তারাপদ ভৌমিক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিঞ্জণের ঘটনাটি শোনার পর মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের পর নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যানের সঙ্গে আলোচনা করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শিঞ্জনকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ঘটনাটি তদন্তের জন্য ৩ সদস্যর কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. নওশের আলী মোড়লকে তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র