Alexa

সাংবাদিকদের ওপর হামলা

ক্যামেরা উদ্ধার হলেও গ্রেফতার হয়নি হামলাকারীরা

ক্যামেরা উদ্ধার হলেও গ্রেফতার হয়নি হামলাকারীরা

স্বপ্নতরী এগ্রো সার্ভিসেস লিমিটেড, ছবি: বার্তা২৪

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিকদের উপর হামলা চালানো সন্ত্রাসীদের সনাক্ত করেছে পুলিশ। ছিনতাই হওয়া ক্যামেরা উদ্ধার হলেও গ্রেফতার হয়নি চিন্থিত সন্ত্রাসীরা।

তবে হামলাকারীদের নাম পরিচয় নিশ্চিত হওয়ায় তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বীরগঞ্জ থানা পুলিশের অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) সাকিলা পারভীন। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে বারোটায় বার্তা২৪.কমকে তিনি এই তথ্য জানান।  

ওসি সাকিলা পারভীন বলেন, ‘হামলার শিকার সাংবাদিকরা লিখিত ও মৌখিক অভিযোগ করেছেন। আমরা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছি। ইতোমধ্যে পুলিশ ছিনতাই হওয়া ক্যামেরাটি উদ্ধার করেছে। তবে হামলাকারীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/19/1555662517010.jpg

ক্যামেরা উদ্ধার হলেও সন্ত্রাসীরা গ্রেফতার হয়নি কেন, এর জবাবে ওসি জানান, ‘আমরা হামলাকারীদের কাছ থেকে ক্যামেরা উদ্ধার করিনি। সুজালপুর ইউনিয়নের একটি গাছ তলায় পড়ে থাকা ভিডিও ক্যামেরাটি উদ্ধার করেছি। ’

ক্যামেরাটি কোন গ্রাম থেকে উদ্ধার হয়েছে এবং কারা সেখানে রেখেছেন, এই প্রশ্নের উত্তরে ওসি সাকিলা পারভীন বলেন, ‘আপনি আমার সাথে পরে কথা বলেন। আমি ব্যস্ত আছি। পারলে ডিবিসি নিউজ এর প্রতিনিধি এবং স্বপ্নতরীর লোকজনের সাথে কথা বলুন। তারাই ভালো বলতে পারবে।’

এসময় তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকদের জিডি ও দাবির প্রেক্ষিতে পুলিশের পক্ষ থেকে সব ধরণের আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ক্যামেরা যখন উদ্ধার হয়েছে। তখন আসামিরাও গ্রেফতার হবে।’

এদিকে, সন্ত্রাসী হামলায় শিকার তিন সাংবাদিকদের মধ্যে গুরুতর আহত ডিবিসি নিউজ এর রংপুর স্টাফ রিপোর্টার নাজমুল ইসলাম নিশাত বার্তা২৪.কমকে জানান, ‘সাতজনের নাম উল্লেখ করে ২৫ জনের ব্যাপারে বীরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। পুলিশ এখন পর্যন্ত কোনো আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তবে ক্যামেরা উদ্ধার হয়েছে বলে আমাকে ওসি বীরগঞ্জ নিশ্চিত করেছেন। ’

এ ঘটনায় রংপুর প্রেসক্লাব, রিপোর্টার্স ক্লাব, রিপোর্টার্স ইউনিটি, ভিডিও জার্নালিস্টস এসোসিয়েশন, ফটো জার্নালিস্টস এসোসিয়েশনসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবি করেছেন। 

শনিবার (২০ এপ্রিল) রংপুর প্রেসক্লাব চত্বরে সাংবাদিক সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের কর্মসূচি দিয়েছেন স্থানীয় সাংবাদিক নেতারা।

উল্লেখ্য, ডেসটিনির পিএসডিপ্রাপ্ত মানিক চন্দ্র বর্মণ নামে এক ব্যক্তি দিনাজপুরের বীরগঞ্জে স্বপ্নতরী এগ্রো সার্ভিসেস লিমিটেড এর ব্যানারে রংপুর বিভাগের চার জেলায় বিভিন্ন লোভনীয় প্যাকেজে টার্কি মুরগির খামারি প্রজেক্ট ব্যবসা চালু করেন। এতে বিভিন্ন মেয়াদে প্রায় ১২০০ খামারি অর্ধশত কোটি টাকার প্যাকেজ গ্রহণ করেন। নির্দিষ্ট মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পর স্বপ্নতরী কর্তৃপক্ষ টাকা ফেরত দিতে টালবাহানা শুরু করে।

এ ঘটনার প্রতিবেদন তৈরি করতে গেলে (১৭ এপ্রিল) বার্তা২৪.কম এর রংপুর স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ফরহাদুজ্জামান ফারুক, ডিবিসি নিউজের রংপুর স্টাফ রিপোর্টার নাজমুল ইসলাম নিশাত ও ক্যামেরা পারসন মহসীন আলীর উপর স্থানীয় সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ক্যামেরা ভাঙচুর ও ছিনতাই করে নেন।

আপনার মতামত লিখুন :