Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

কাদেরের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেন জিএম কাদের

কাদেরের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেন জিএম কাদের
জি এম কাদের ও ওবায়দুল কাদের, ছবি: সংগৃহীত
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
ঢাকা
বার্তা ২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যান তিনি।

প্রায় আধাঘণ্টা বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ করেন তারা। জিএম কাদেরও স্বাস্থ্যের পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুর অবস্থান করছেন। ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক সুস্থতার খবরে আল্লাহর দরবারে শোকর আদায় করেন জিএম কাদের।

সাক্ষাত শেষে ফেরার সময় বাড়ির প্রধান দরজা পর্যন্ত এগিয়ে দেন জিএম কাদেরকে। ওবায়দুল কাদের যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে বাংলাদেশে ফিরে আসতে পারেন সেজন্য দেশবাসীর কাছে দোয়াও চেয়েছেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপি।

আপনার মতামত লিখুন :

ঈদের ১ সপ্তাহ আগে সড়ক মেরামত শেষ করার নির্দেশ

ঈদের ১ সপ্তাহ আগে সড়ক মেরামত শেষ করার নির্দেশ
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের/ ছবি: সংগৃহীত

আসন্ন ঈদুল আযহার এক সপ্তাহ আগে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সকল সড়ক-মহাসড়কগুলোর চলমান জরুরি মেরামত কাজ শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক জরুরি সভায় মন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের এ নির্দেশনা দিয়েছেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

যুব ও নারীবান্ধব নাগরিক সেবার দাবি

যুব ও নারীবান্ধব নাগরিক সেবার দাবি
জাতীয় নাগরিক সেবা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালি

যুব ও নারীবান্ধব নাগরিক সেবার দাবি জানিয়ে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ‘জাতীয় নাগরিক সেবা দিবস-২০১৯’ পালিত হয়েছে।

যুব ও নারীবান্ধব নাগরিক সেবা নিশ্চিতে তরুণদের অংশগ্রহণ ও সরকারের জবাবদিহিতা বৃদ্ধির দাবি তুলে ধরে ঢাকার গেন্ডারিয়া এলাকায় তরুণ-তরুণীসহ নানা বয়স ও শ্রেণি-পেশার মানুষ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সকালে ট্রাক র‌্যালির মধ্য দিয়ে এ কর্মসূচি শুরু হয়। নাগরিক সেবা দিবস উপলক্ষে কর্মসূচির আয়োজন করে একশনএইড বাংলাদেশ।

বাংলাদেশে নাগরিক সেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে গৃহীত সরকারি উদ্যোগসমূহকে স্বাগত জানিয়ে আয়োজকরা বলেন, বর্তমানে দেশের তিন ভাগ জনগোষ্ঠীর এক ভাগ তরুণ, যা বাংলাদেশের জন্য একটি বড় সুযোগ। এই জনগোষ্ঠীকে দেশের উন্নয়নে কাজে লাগাতে সরকারি এবং বেসরকারি পর্যায় থেকে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সামগ্রিক প্রক্রিয়ায় তরুণদের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

আয়োজকদের মতে, তরুণদের জন্য সরকারি অনেক ধরনের সেবা থাকলেও অধিকাংশ তরুণরাই জানেন না কিভাবে সেবাগুলো তারা গ্রহণ করতে পারবে। অপরদিকে, অনেক ক্ষেত্রে সেবাগুলো যুব এবং নারীবান্ধব হয় না। তাই অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন নিশ্চিতে জবাবদিহিতামূলক মানসম্পন্ন নাগরিক সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি তা যুব ও নারীবান্ধব হওয়া অত্যন্ত জরুরি।

যুব নেটওয়ার্ক ‘কোয়ালিটি অ্যান্ড একাউন্টেবল পাবলিক সার্ভিসেস (কিউএপিএস)’ এবং এক্টিভিস্টা বাংলাদেশ-এর সাথে যৌথভাবে একশনএইড বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত এই কার্যক্রমে র্যাটলির পাশাপাশি সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ফ্ল্যাশ মব এবং নাগরিক সেবা সম্পর্কিত তথ্য সম্বলিত স্টিকার জনগণের মাঝে বিতরণ করা হয়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র