Barta24

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

কাকরাইল মসজিদে ইমামতি করলেন মাওলানা সাদ

কাকরাইল মসজিদে ইমামতি করলেন মাওলানা সাদ
সেন্ট্রাল ডেস্ক ২


  • Font increase
  • Font Decrease
কঠোর নিরাপত্তাবেষ্টনীর মধ্যে রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে জুমার নামাজের ইমামতি করেছেন দিল্লির নেজামুদ্দিন মারকাজের মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভী। নামাজের আগে তিনি বয়ান করেন। বয়ানে তাবলিগ জামাতের মুসল্লিরা উপস্থিত ছিলেন। বয়ানে মাওলানা সাদ দাওয়াত ও তাবলিগের গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করেন  এবং বিশ্বব্যাপী এই মেহনত ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জনান। নামাজ শেষে বিশ্ববাসীর শান্তিকামনা করে মোনাজাত করেন তিনি। শুক্রবার সকাল থেকে সাদের অনুসারী হিসেবে পরিচিত তাবলিগ জামাতের একাংশ মসজিদে অবস্থান নেয়। আজ শনিবার দিল্লিতে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে সাদের। এদিকে কাকরাইল মসজিদকে ঘিরে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মসজিদের সবক’টি প্রবেশ পথে সতর্ক অবস্থায় রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। আছে সাদা পোশের পুলিশও। মসজিদে আসা সন্দেহভাজন অনেককে তল্লাশি করতে দেখা গেছে এ সময়। তাবলিগের সাথী মাওলানা ওসামা বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়েই মাওলানা সাদ কাকরাইলে বয়ান করছেন। এজন্য অনেকেই কাকরাইল মসজিদে এসেছেন। আপাতত সাদ ও তার সঙ্গে আসা মেহমানরা কাকরাইলে থাকছেন। তাবলিগ জামাতের এক সাথী বলেন, মাওলানা সাদকে বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে দেওয়া হয়নি, সেহেতু তিনি দেশে ফিরে যাবেন। ধারণা করা হচ্ছে, শনিবার দেশে ফিরে যাবেন। সাদের সঙ্গে আসা কেউই  ইজতেমায় অংশ নেবেন না। ফিরে যাওয়ার আগে ঢাকায় তার অনুসারীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন সাদ। পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার এ বিষয়ে বাংলাদেশের খবরকে বলেন, দিল্লিতে  ফিরে না যাওয়া পর্যন্ত কাকরাইলে থাকবেন সাদ। যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এছাড়া আশপাশের এলাকায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও ভিভিআইপিদের বসবাস রয়েছে। আমাদের কাজ নিরাপত্তা দেওয়া, নিরাপত্তা দিচ্ছি।
আপনার মতামত লিখুন :

‘সংবিধানের মধ্যে থেকে দায়িত্ব পালন করুন’

‘সংবিধানের মধ্যে থেকে দায়িত্ব পালন করুন’
ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী, পুরনো ছবি

ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিদের সঙ্গে সাক্ষাতকালে তিনি এ আহ্বান জানান।

হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার ওসমান হায়দার সাংবাদিকদের জানান, এটি ছিল সৌজন্য সাক্ষাৎ। এখানে সাবজুডিশ বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী বলেছেন, সংবিধানের মধ্যে থেকে আইনানুগভাবে যার যার অবস্থান থেকে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করতে হবে।

প্রধান বিচারপতির কার্যভার পালনরত বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী ডিসি ও বিভাগীয় কমিশনারদের উদ্দেশে বলেন, আদালতের আদেশ পালনের জন্য আপনাদেরও দায়িত্ব রয়েছে। এককভাবে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব না।

এর আগে ডিসি ও বিভাগীয় কমিশনারদের মধ্যে থেকে একজন করে বক্তব্য দেন। তারা বলেন, ভূমির ইজারা সংক্রান্ত মামলাগুলো অনেক সময় উচ্চ আদালতের আদেশে স্থগিত থাকে। এসব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি হলে সরকারের রাজস্ব আদায় বাড়তো। আর আদালতের নির্দেশগুলো ডিজিটাল পদ্ধতিতে দ্রুত পৌঁছাতে পারলে কাজ করা আরও সহজ হতো।

সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে আপিল বিভাগের বিচারপতিরা ছাড়াও সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বুধবার মিরপুর ১০ থেকে ইসিবিতে ১১ ঘণ্টা গ্যাস বন্ধ

বুধবার মিরপুর ১০ থেকে ইসিবিতে ১১ ঘণ্টা গ্যাস বন্ধ
ছবি: সংগৃহীত

গ্যাস পাইপলাইন স্থানান্তরের জন্য মিরপুর ১০ নম্বর থেকে ইসিবি চত্বর পর্যন্ত বিস্তীর্ণ এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

বুধবার (১৭ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ১১ ঘণ্টা গ্যাসের সরবরাহ বন্ধ থাকবে বলে তিতাস কর্তৃক প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) গণমাধ্যমে প্রেরিত বিজ্ঞপ্তিতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধে গ্রাহকদের সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

এতে বলা হয়েছে, ইসিবি চত্বর থেকে মিরপুর পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন এবং কালশি মোড় ফ্লাইওভার নির্মাণ প্রকল্পের অ্যালাইনমেন্টের মধ্যে বিদ্যমান গ্যাস পাইপলাইন স্থানান্তরের নিমিত্তে ‘টাই-ইন’ কাজের জন্য ১৭ জুলাই বুধবার সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত (১১ ঘণ্টা) মিরপুর-১০, ১১, ১২, ১৩, ১৫ এবং কালসি রোডের উভয় পাশসহ তৎসংলগ্ন এলাকায় আবাসিক, বাণিজ্যিক, শিল্প ও সিএনজি গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে ।

এছাড়া উক্ত সময়ে আশপাশের এলাকায় গ্যাসের স্বল্পচাপ বিরাজ করবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র