Barta24

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

বৈধতার পরও ‘নিয়োগ বঞ্চিত’ সহকারী আইসিটি শিক্ষকরা

বৈধতার পরও ‘নিয়োগ বঞ্চিত’ সহকারী আইসিটি শিক্ষকরা
ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

নিয়োগের সুপারিশপত্র দেওয়ার পরও সহকারী আইসিটি শিক্ষক পদে নিয়োগ দেওয়া হয়নি ছয় মাস মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্সধারীদের। এমনকি হাইকোর্ট ডিভিশন ছয় মাস মেয়াদী কম্পিউটার ডিপ্লোমা সনদের বৈধতা দেওয়ার পর তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়নি।

রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘আদালতের রায় থাকার পরেও আমরা কেন নিয়োগ বঞ্চিত’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন নিয়োগবঞ্চিত সহকারী আইসিটি শিক্ষক আন্দোলনের সভাপতি ওসমানগণি মজুমদার।

তিনি বলেন, আমরা এনটিআরসিএ’র সাথে যোগাযোগ করলে তারা একেক সময় একেক নিয়ম দেখাচ্ছে। সকল ক্ষেত্রে বলছে, এমপিও নীতিমালা ২০১৮ অনুসরণ করতে। কিন্তু নীতিমালা ২০১৮ অনুযায়ী ১-১২তম নিবন্ধনধারীদের ক্ষেত্রে এমপিও নীতিমালা প্রযোজ্য নয়। তাই শিক্ষামন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে নিবেদন করছি, আমাদের এই পদে নিয়োগ দিয়ে সুস্থভাবে জীবন ধারণ ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার সুযোগ দিন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান, সুলতানা নাসরিন, মোহাম্মদ হাশেম, সুলতানা খাতুনসহ নিয়োগবঞ্চিত সহকারী আইসিটি শিক্ষকরা।

আপনার মতামত লিখুন :

সিলেটে বেড়েছে পাসের হার, জিপিএ-৫

সিলেটে বেড়েছে পাসের হার, জিপিএ-৫
সিলেট শিক্ষা বোর্ড

 

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় পাসের হার ও জিপিএ-৫ উভয় ক্ষেত্রেই এবার ভালো ফল করেছে সিলেট শিক্ষা বোর্ড। এ বোর্ডে পাসে হার ৬৭ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ। গত বছর পাসের ছিল ৬২ দশমিক ১১ শতাংশ।

একই সঙ্গে গত বছরের থেকে এবার জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও বেড়েছে। সিলেট বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছেন এক হাজার ৯৪ জন। গত বছর  জিপিএ-৫  পেয়েছিলেন ৮৭৩ জন বলে জানান সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. কবির আহমদ।

এ বছর সিলেট ৭৬ হাজার ২৫১ শিক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। এর মধ্যে মেয়ে ৪১ হাজার ৬০২ জন এবং ছেলে ৩৪ হাজার ৬৪৯ জন ।

পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীর মধ্যে পাস করেছে ৫১ হাজার ১২৪ জন। এদের মধ্যে ছেলে ২২ হাজার ৪৯০ জন এবং মেয়ে ২৮ হাজার ৬৩৪ জন।

এ বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৯৪৪ জন, মানবিক বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯১ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৯ জন।

পাসের হারে এগিয়ে কুমিল্লা বোর্ড, পিছিয়ে চট্টগ্রাম

পাসের হারে এগিয়ে কুমিল্লা বোর্ড, পিছিয়ে চট্টগ্রাম
ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজে ফলাফল দেখছে শিক্ষার্থীরা/ ছবি: সুমন শেখ

২০১৯ সালের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এবারের পরীক্ষায় পাসের হার ৭৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ ও জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ৪৭ হাজার ২৮৬ জন পরীক্ষার্থী।

প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায়, এবার পাসের হারের শতকরা হিসাবে সবচেয়ে এগিয়ে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড। আর সবেচেয়ে পিছিয়ে আছে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড।

বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী। এর আগে সকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী সহ সংশ্লিষ্ট বোর্ড প্রধানরা।

ফলাফলের বোর্ডভিত্তিক পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৭১ দশমিক ০৯ শতাংশ, রাজশাহী বোর্ডে ৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ, কুমিল্লা বোর্ডে ৭৭ দশমিক ৭৪ শতাংশ, যশোর বোর্ডে ৭৫ দশমিক ৬৫ শতাংশ, চট্টগ্রাম বোর্ডে ৬২ দশমিক ১৯ শতাংশ, বরিশাল বোর্ডে ৭০ দশমিক ৬৫ শতাংশ, সিলেট বোর্ডে ৬৭ দশমিক ০৫ শতাংশ ও দিনাজপুর বোর্ডে পাসের হার ৭১ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

এছাড়া মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে পাস করেছে ৮৮ দশমিক ৫৬ শতাংশ, কারিগরি শিক্ষাবোর্ড থেকে পাস করেছে ৮২ দশমিক ৬২ শতাংশ ও ডিআইবিএস (ঢাকা)-এ পাসের হার ৬০ শতাংশ।

আরও পড়ুন: পাসের হারে এগিয়ে মেয়েরা

আরও পড়ুন: এইচএসসিতে পাসের হার ৭৩.৯৩%

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র