Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

শুক্রবারের ভিড়ে সন্তুষ্ট বিক্রেতারা 

শুক্রবারের ভিড়ে সন্তুষ্ট বিক্রেতারা 
ছুটির দিনে দর্শনার্থীদের ভিড় ছবি: সৈয়দ মেহেদি
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
ঢাকা
বার্তা ২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ২৪ তম আসর শুরু হওয়ার মাত্র ২ দিন পরেই পড়েছে ছুটির দিন শুক্রবার। মেলা শুরু মাত্র দুই দিন পর শুক্রবার পড়ায় বিক্রেতাদের আকাঙ্ক্ষা ছিল বেশি। বিক্রেতাদের আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলনও ঘটেছে বাণিজ্য মেলাতে।

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণে এ চিত্র দেখা গেছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/11/1547210866407.jpg

বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণে সরেজমিনে দেখা গেছে, শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর থেকে মেলা প্রাঙ্গণে আসতে শুরু করেন দর্শনার্থীরা। দল বেঁধে দর্শনার্থীরা মেলা প্রাঙ্গণে আসতে থাকেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উল্লেখযোগ্য হারে দর্শনার্থীদের আগমনের সংখ্যা বাড়তে থাকে। মেলায় দর্শনার্থীদের এমন আগমন দেখে ক্রেতাদের মুখে ফুটে প্রশান্তির হাসি।

ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মেলা শুরুর প্রথম ছুটির দিনে দর্শনার্থীর এমন আগমনে তারা সন্তুষ্ট। দর্শনার্থী আগমনের সংখ্যা পর্যাপ্ত হয়নি বলেও তারা জানান। কিন্তু মেলার শুরু দিকে এমন আগমনেই তারা সন্তুষ্ট।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/11/1547210717347.jpg

প্রাণ চিনিগুড়া চালের প্যাভিলিয়নের কর্মকর্তা মো.হাসিব বার্তা২৪কে বলেন, মেলার শুরু হওয়ার পর প্রথম ছুটির দিন আজকে। দর্শনার্থী আগমন সন্তুষ্ট জনক। টুকিটাকি কেনাবেচাও হচ্ছে আমাদের।

এদিকে মেলা প্রাঙ্গণে সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা  গেছে দেশী বিদেশী বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের স্টল ও প্যাভিলিয়নগুলোতে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/11/1547210903422.jpg

আকিব কুকারিজ স্টলের ম্যানেজার মো.সোহেল বার্তা২৪কে বলেন, ক্রেতা সংখ্যা অনেক ভালো আমাদের স্টলে। ক্রেতারা শুধু দেখছেন, কেনাকাটাও করছেন বিভিন্ন কুকারিজ পণ্য।

ওদিকে আগত দর্শনার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাণিজ্য মেলা ৯ জানুয়ারি থেকে শুরু হলেও গত দুই দিন ওয়ার্কিং ডে হওয়ায় তারা আসতে পারেননি। কিন্তু শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় তারা মেলা প্রাঙ্গণে এসেছেন। তবে পণ্য কেনার থেকে দেখতেই এসেছেন বেশি সংখ্যক দর্শনার্থী।

রাজধানীর মিরপুর থেকে বন্ধুদের সঙ্গে মেলায় এসেছেন আফছান মলি। তিনি বার্তা২৪কে বলেন, ছুটির দিনগুলোতে আমরা প্রায় ঘুরতে বের হই। মেলা শুরু হওয়ায় এখানে ঘুরতে এসেছি। তবে এখন পণ্যের অনেক দাম, আর কিছু দিন পর দাম কমবে বলে মনে হচ্ছে। তখন কেনাকাটা করব।

ধানমন্ডি থেকে আগত ক্রেতা সামিয়া বার্তা২৪কে বলেন, কিছু কুকারিজ পণ্য কিনেছি। তবে আর কিছু পণ্য কেনার কথা ভাবছিলাম, কিন্তু দাম এখনো স্বাভাবিক হয়নি। পরে দেখা যাবে, দাম স্বাভাবিক হলে।

উল্লেখ,এবারের বাণিজ্য মেলায় স্টল ও প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৫১২ টি। এছাড়া বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫টি দেশের ৫২টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিচ্ছে।

এর আগে বুধবার (০৯ জানুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে দেশের এই বৃহৎতম পণ্য মেলা।

আপনার মতামত লিখুন :

হালদা দূষণ: এশিয়ান পেপার মিলসের উৎপাদন বন্ধের নির্দেশ

হালদা দূষণ: এশিয়ান পেপার মিলসের উৎপাদন বন্ধের নির্দেশ
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে বর্জ্য ফেলে দূষণের দায়ে চিটাগং এশিয়ান পেপার মিলসের উৎপাদন বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পরিবেশ অধিদফতর।

রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুরে অধিফতরের চট্টগ্রাম মহানগরের পরিচালক আজাদুর রহমান মল্লিক তার কার্যালয়ে শুনানি শেষে এ সিদ্ধান্ত দেন।

তিনি বলেন, 'শুনানির পর জরুরি ভিত্তিতে সঠিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, ত্রুটি সংশোধন করে ইটিপি সার্বক্ষণিক চালু রাখার পদক্ষেপ গ্রহণ ও পরিবেশসম্মত স্লাজ অপসারণের ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। এসব ব্যবস্থা গ্রহণ না করা পর্যন্ত কারখানার উৎপাদন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।'

এর আগে গত ৩০ মে হালদা দূষণের দায়ে চট্টগ্রামের নন্দীরহাটের এশিয়ান পেপার মিলের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দিয়েছেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার।

আরও পড়ুন: হালদা দূষণ: হাটহাজারী বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা

আরও পড়ুন: হালদা দূষণে এশিয়ান পেপার মিলের বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ

ঢামেকে নার্স ও প্যাথলজি বিভাগের মধ্যে সংঘর্ষ

ঢামেকে নার্স ও প্যাথলজি বিভাগের মধ্যে সংঘর্ষ
ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল, ছবি: সংগৃহীত

টেস্টের রিপোর্ট নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) নার্স ও প্যাথলজি বিভাগের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (১৮ আগস্ট) দুপুর ১টা ৩০ মিনিটের দিকে ঢামেক হাসপাতালের নতুন ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো.বাচ্চু মিয়া বলেন, 'একটি টেস্টের রিপোর্ট নিয়ে ঢামেক হাসপাতালের নার্স ও প্যাথলজি বিভাগের লোকজনদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রাথমিকভাবে এই তথ্যই আছে আমার কাছে। তবে ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে কএম নাসির উদ্দিন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছেন।'

 
 
 

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র