Barta24

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

শপথ নিলেন ময়মনসিংহ বিভাগের ৫ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী

শপথ নিলেন ময়মনসিংহ বিভাগের ৫ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী
ছবি: বার্তা২৪
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
ময়মনসিংহ
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

৪৬ সদস্যের নতুন মন্ত্রিপরিষদে ময়মনসিংহ বিভাগ থেকে একজনকে মন্ত্রী ও চারজনকে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে ঠাঁই দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৭ জানুয়ারি) বিকেলে বঙ্গভবনের দরবার হলে তাদের শপথ বাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন নেত্রকোণা জেলার খালিয়াজুড়ির কৃতিসন্তান মোস্তাফা জব্বার। তিনি এরআগেও এ মন্ত্রণালয়েরই মন্ত্রী ছিলেন।

এদিকে নেত্রকোণা জেলা পেয়েছে একজন প্রতিমন্ত্রী। নেত্রকোণা-২ (সদর-বারহাট্টা) আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য আশরাফ আলী খান খসরু পেয়েছেন মৎস ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব।

ময়মনসিংহ জেলা পেয়েছে দুইজন প্রতিমন্ত্রী। ময়মনসিংহ-২ (ফুলপুর-তারাকান্দা) আসন থেকে টানা দুইবার এমপি হওয়া শরীফ আহমেদ সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এবং ময়মনসিংহ-৫ (মুক্তাগাছা) আসন থেকে দ্বিতীয়বারের মতো এমপি হওয়া কেএম খালিদ বাবু সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেছেন।

এছাড়া জামালপুর-৪ (সরিষাবাড়ি) আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ডা. মুরাদ হাসানকে দেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। তবে শেরপুর জেলা থেকে কাউকেই রাখা হয়নি এবারের মন্ত্রিপরিষদে।

আপনার মতামত লিখুন :

রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডে বেড়েছে পাসের হার ও জিপিএ-৫

রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডে বেড়েছে পাসের হার ও জিপিএ-৫
প্রত্যাশিত ফলাফল পাওয়া শিক্ষার্থীরা উল্লাসে মেতে উঠেছে। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ৭২৯ জন শিক্ষার্থী।

গত বছর পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৪ হাজার ১৩৮ জন শিক্ষার্থী। ফলে চলতি বছরের ফলাফলে পাসের হার ও জিপিএ-৫ দুই-ই বেড়েছে এই শিক্ষাবোর্ডে।

বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই ফল ঘোষণা করেন বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ড. আনারুল হক প্রামাণিক।

তিনি জানান, চলতি বছরের ফলাফলে পাসের হারে ছাত্রদের চেয়ে ছাত্রীরা এগিয়ে রয়েছে। ছাত্রীদের পাসের হার ৮১ দশমিক ২১ শতাংশ। আর ছাত্রদের পাসের হার ৭২ দশমিক ৩২ শতাংশ। তবে জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে এগিয়ে রয়েছে ছেলেরা। ৩ হাজার ৫৪১ জন ছাত্র জিপিএ-৫ অর্জন করেছে। আর ছাত্রীরা জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ১৮৮ জন।

সংবাদ সম্মেলনে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক আনারুল আরও জানান, রাজশাহী বোর্ডের অধীনে এবার ৭৫৮টি কলেজ থেকে ১ লাখ ৫১ হাজার ১৩৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। যার মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ১৩ হাজার ৫৫০ জন। ৭টি কলেজে পাসের হার শূন্য। ৩৪টি কলেজে শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করেছে। অকৃতকার্যদের মধ্যে এক বিষয়ে ফেল করেছে ২৬ হাজার ৮২৮ জন। যা মোট পরীক্ষার্থীর ১৮ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ।

ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী- রাজশাহী বোর্ডের অধীনস্থ জেলাগুলোর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাসের হার ৬৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৩৫ জন। নাটোর জেলায় পাসের হার ৭৬ দশমিক ৬৬ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮৪ জন। নওগাঁ জেলায় পাসের হার ৬৯ দশমিক ০৭ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫২ জন।

পাবনা জেলায় পাসের হার ৭৪ দশমিক ২২ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৪২ জন। সিরাজগঞ্জ জেলায় পাসের হার ৭৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৪৬ জন। বগুড়া জেলায় পাসের হার ৮১ দশমিক ১৮ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৪৩৭ জন। জয়পুরহাট জেলায় পাসের হার ৭২ দশমিক ৬৪ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২০৯ জন।

এদিকে, ফল ঘোষণার পর রাজশাহীর বিভিন্ন কলেজ ঘুরে দেখা গেছে, প্রত্যাশিত ফলাফল পাওয়া শিক্ষার্থীরা উল্লাসে মেতে উঠেছে। তারা ব্যান্ড বাজিয়ে উল্লাস করছে। অভিভাবকরা মিষ্টি হাতে কলেজে এসেছে। কৃতি শিক্ষার্থী ও কলেজের শিক্ষকদের মিষ্টি মুখ করাচ্ছে অভিভাবকরা।

সিলেটে বেড়েছে পাসের হার, জিপিএ-৫

সিলেটে বেড়েছে পাসের হার, জিপিএ-৫
এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল তুলে ধরছেন সিলেট শিক্ষা বোর্ড/ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় পাসের হার ও জিপিএ-৫ উভয় ক্ষেত্রেই এবার ভালো ফল করেছে সিলেট শিক্ষা বোর্ড। এ বোর্ডে পাসে হার ৬৭ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ। গত বছর পাসের ছিল ৬২ দশমিক ১১ শতাংশ।

একই সঙ্গে গত বছরের থেকে এবার জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও বেড়েছে। সিলেট বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছেন এক হাজার ৯৪ জন। গত বছর  জিপিএ-৫  পেয়েছিলেন ৮৭৩ জন বলে জানান সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. কবির আহমদ।

এ বছর সিলেট ৭৬ হাজার ২৫১ শিক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। এর মধ্যে মেয়ে ৪১ হাজার ৬০২ জন এবং ছেলে ৩৪ হাজার ৬৪৯ জন ।

পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীর মধ্যে পাস করেছে ৫১ হাজার ১২৪ জন। এদের মধ্যে ছেলে ২২ হাজার ৪৯০ জন এবং মেয়ে ২৮ হাজার ৬৩৪ জন।

এ বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৯৪৪ জন, মানবিক বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯১ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৯ জন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র