Barta24

সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

অস্ট্রেলিয়া ম্যাচেও ‘সাকিব ফ্যাক্টর’!

অস্ট্রেলিয়া ম্যাচেও ‘সাকিব ফ্যাক্টর’!
প্রতিপক্ষের জন্য আতঙ্কের এক নাম সাকিব আল হাসান
এম. এম. কায়সার
স্পোর্টস এডিটর
বার্তা২৪.কম
নটিংহ্যামশায়ার
ইংল্যান্ড থেকে


  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের জন্য বাড়তি মনোযোগ দিতেই হচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলা বাংলাদেশের ম্যাচটা দেখেছে অস্ট্রেলিয়া। শুধু তাই নয়, সেই ম্যাচের রিপ্লেও বারকয়েক দেখেছে তারা। দেখেছে এবং সেই সঙ্গে খাতায় নোট টুকেছে-‘বাংলাদেশ বিপদজনক দল!’

আর তাই ২০ জুন, বৃহস্পতিবারের ম্যাচে শুধু এক সাকিব আল হাসানকে নিয়েই নয়, পুরো বাংলাদেশ দলকে নিয়ে পরিকল্পনা সাজিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশ একাদশের সব ক্রিকেটারদের নিয়ে ম্যাচপূর্ব বিশ্লেষণ করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ান উইকেটকিপার কাম মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ক্যারি জানালেন সেই তথ্য। তবে ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে এই চুলচেরা বিশ্লেষণ নতুন কিছু নয় তাও জানিয়ে দিলেন তিনি-‘এমন নয় যে আমরা বাংলাদেশের খেলা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের পর খুব বেশি নতুন কিছু করছি। আগের পরিকল্পনার মধ্যেই রয়েছি। বাদ বাকি দলগুলোর বিপক্ষে সাধারণত আমরা যা করে থাকি, এই ম্যাচের আগেও সেই পথেই থাকছি।’

এই যে নতুন করে পুরনো তথ্য জানান দেয়া- সেটাই প্রমাণ করছে এই বাংলাদেশকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বাড়তি মনোযোগ থাকছেই!

 অ্যালেক্স ক্যারি মেনে নিলেন-‘বাংলাদেশ এখন ভালো ক্রিকেট খেলছে।’

প্রশ্ন উঠলো-‘অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণ নিয়ে ভীত কিনা?’ কাঁধ ঝাঁকিয়ে একটু অবাক হলেন ক্যারি-‘ভয়? কাকে?’

তবে সার্বিক বিশ্লেষনে নিজেই আবার জানালেন-‘না, আমরা কারো স্পিন আক্রমণ নিয়ে শঙ্কিত নই। আমরা আমাদের প্রস্তুতি পুরো করছি। জাানি সাকিবের স্পিন বড় হুমকি। দলের হয়ে চমৎকার খেলছে সে এখন। মেহেদি এবং দলের বাকি স্পিনারদের নিয়েও আমাদের হোমওয়ার্ক আছে। শুধু স্পিন নয়, বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের বিপক্ষে আমরা ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। এই কন্ডিশনে আমরা যে কোনো বোলিং আক্রমণের জন্য তৈরি।’

অ্যালেক্স ক্যারির সংবাদ সম্মেলনের অনেকাংশ জুড়েই থাকলেন সাকিব আল হাসান। চলতি বিশ্বকাপের সর্বাধিক রানের মালিক সাকিব এবং এই টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বড় আকর্ষন। ক্যারি সেটা মেনেও নিলেন-‘সাদা বলের ক্রিকেটে সম্ভবত সাকিব তার ক্যারিয়ারের সেরা ফর্ম কাটাচ্ছে। আমরা জানি কোথায় কোন লেন্থে তাকে বল করতে হবে।’

সাকিবকে এই ম্যাচের ‘ফ্যাক্টর’ হিসেবে মানলেও তার জন্য বাড়তি পরিকল্পনার কথা কিন্তু অস্বীকার করলেন ক্যারি-‘অন্য দশটা ম্যাচের মতো এই ম্যাচে আমরা আমাদের পরিকল্পনা সাজাচ্ছি। তবে হ্যাঁ, সাকিবকে একটু আগেভাগে আউট হতে দেখতে চাই আমরা।’

আপনার মতামত লিখুন :

ছুটি শেষে ফিরতে পারবেন ধোনি?

ছুটি শেষে ফিরতে পারবেন ধোনি?
মহেন্দ্র সিং ধোনির ফেরা নিয়ে তৈরি হয়েছে শঙ্কা!

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকে নিজেই ইচ্ছে করে সরে দাড়িয়েছেন। আগামী দুই মাস ছুটি! তবে এই সময়টাতে আর্মি ক্যাম্পেই দেখা যাবে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। আপাতত প্যারা মিলিটারি ফোর্সের ট্রেনিংয়ে যোগ দেবেন তিনি। কিন্তু ছুটি শেষে ফের জাতীয় দলে দেখা যাবে কি সাবেক এই অধিনায়ককে?

এমন প্রশ্ন এখন উড়ে বেড়াচ্ছে ভারতের ক্রিকেটাঙ্গনে। যদিও ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড জানিয়ে রেখেছে এখনই অবসর নিচ্ছেন না ধোনি। তবে তার ফেরা নিয়েও তৈরি হয়েছে নতুন শঙ্কা!

ক্যারিবীয় সফরের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করতে গিয়ে নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ বলছিলেন- কখন অবসরে যাবেন সেটা ধোনিই জানেন। এটা তার ব্যক্তিগত বিষয় আর ধোনির মতো কিংবদন্তি জানেন কখন সরে দাঁড়াতে হয়!

তবে ছুটি শেষে ধোনির চাইলেই ভারতের জার্সিতে মাঠে নেমে পড়তে পারবেন না! এক্ষেত্রে নির্বাচকদের দিকেই থাকিয়ে থাকতে হবে এই উইকেট কিপার-ব্যাটসম্যানকে। যদি নির্বাচকরা ভবিষ্যতের কথা ভেবে দল গড়তে চায়, তবে ধোনির আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি ঘটবে!

ভারতীয় বোর্ড জানিয়ে রেখেছে-নির্বাচকরা চাইলে তার নাম বিবেচনা করতে পারে। আর না চাইলেও তার এ বিষয়ে কোনও বক্তব্য নেই বোর্ডের।

ধোনি অনেক দিন ধরেই ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলছেন না। এ অবস্থায় দু’মাসের বিশ্রাম শেষে ফিরে ফিটনেস পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগও থাকছে না। নির্বাচকরা সুযোগ না করে দিলে ফেয়ারওয়েল ম্যাচ খেলার প্রস্তাব পেতে পারেন ধোনি।

এরমধ্যে উইন্ডিজ সফরে দীনেশ কার্তিককে নিয়েও সিদ্ধান্তটা নিয়ে ফেলেছেন নির্বাচকরা। বলা হচ্ছে তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার প্রায় শেষ। ঋদ্ধিমান সাহা টেস্টে ফিরেছেন। ঋদ্ধিমান ফিরলেও উইকেটের পেছনে রিশব পান্তই প্রথম পছন্দ। তিন ফরম্যাটেই টিম ইন্ডিয়ার উইকেট কিপার হতে যাচ্ছেন তিনি। সেক্ষেত্রে উইন্ডিজ সফরে তিনি ভাল খেললে ধোনির ফেরাটা কঠিনই হয়ে যাবে‍! যদিও বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক এখনো অবসর নেননি!

টিভিতে নিদহাস ট্রফির বাংলাদেশ-ভারত ফাইনাল

টিভিতে নিদহাস ট্রফির বাংলাদেশ-ভারত ফাইনাল
রোহিত-মাহমুদউল্লাহদের সেই উত্তেজনা ছড়ানো লড়াই ফের টিভি পর্দায়

দুর্দান্ত দাপটে ফাইনালে উঠে এসেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু শিরোপা লড়াইয়ে ভারতকে হারানো হয়নি! উত্তেজনা ছড়ানো ফাইনালে টাইগারদের ৪ উইকেটে হারিয়ে নিদহাস ট্রফির শিরোপা জিতে নেয় ভারতীয় দল। দিনেশ কার্তিকের (৮ বলে ২৯) ঝড়ো ব্যাটিংয়ে শেষ বলে এসে সর্বনাশ! ২০১৮ সালের সেই টি-টুয়েন্টি লড়াইয়ের হাইলাইটস আজ সোমবার দেখা যাবে টেলিভিশনের পর্দায়।

ছোট পর্দায় থাকছে তামিলনাড়ু প্রিমিয়ার লিগও। টানটান উত্তেজনাকর ক্রিকেট ম্যাচ উপভোগ করতে পারবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। ক্রিকেট লড়াই সরাসরি সম্প্রচার হবে সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিট থেকে।

ইন্দোনেশিয়ান ওপেনের ব্যাডমিন্টন লড়াই দেখার সুযোগ থাকছে ক্রীড়াপ্রেমীদের জন্য। ব্যাডমিন্টন লড়াই দর্শকরা সরাসরি টেলিভিশনের পর্দায় উপভোগ করতে পারবেন দুপুর ১টা থেকে।

দর্শকদের জন্য থাকছে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ কাবাডির লড়াই। প্রো-কাবাডি লিগের খেলা টেলিভিশনের পর্দায় সরাসরি উপভোগ করতে পারবেন রাত ৮টা থেকে। থাকছে উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ হাইলাইটস।

চলুন দেখে নেই সোমবার টেলিভিশনের পর্দায় কখন কী থাকছে-

ক্রিকেট
বিশ্বকাপ ২০১৯
হাইলাইটস, রাত ১১.৩০ মিনিট
স্টার স্পোর্টস টু

নিদহাস ট্রফি
বাংলাদেশ : ভারত, ফাইনাল
হাইলাইটস, সন্ধ্যা ৭.৩০ মিনিট
ডি স্পোর্ট

তামিলনাড়ু প্রিমিয়ার লিগ
সরাসরি সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিট
স্টার স্পোর্টস থ্রি

কাবাডি
ভিভো প্রো-কাবাডি লিগ
সরাসরি রাত ৮টা
স্টার স্পোর্টস ওয়ান ও টু

ব্যাডমিন্টন
ইন্দোনেশিয়ান ওপেন
সরাসরি দুপুর ১টা
স্টার স্পোর্টস ওয়ান

টেনিস
উইম্বলডন, হাইলাইটস
রাত সাড়ে ১০টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট টু

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র