Barta24

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

বাকিংহ্যাম প্যালেসে রানীর অতিথি বিশ্বকাপ অধিনায়করা

বাকিংহ্যাম প্যালেসে রানীর অতিথি বিশ্বকাপ অধিনায়করা
বিশ্বকাপে অংশ নেয়া ১০ দেশের অধিনায়কের সঙ্গে রানী এলিজাবেথ- ছবি: টুইটার
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বকাপে মাঠে নামার আগে ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা হয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার। ব্রিটেনের রানী এলিজাবেথের অতিথি হয়ে বাকিংহ্যাম প্যালেস ঘুরে এসেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। সঙ্গে আমন্ত্রিত ছিলেন বিশ্বকাপ ২০১৯ এর অন্য নয় দেশের অধিনায়করাও। এই সময় ডিউক অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারিও উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্বকাপের দশ অধিনায়করা বুধবার দুপুরে নির্ধারিত সময় বাকিংহ্যাম প্যালেসে এসে উপস্থিত হন। তারা সবাই এক সারিতে দাড়ান। রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ তাদের প্রত্যেকের সঙ্গে পরিচিত হন। ঐতিহ্য অনুযায়ী ক্রিকেট অধিনায়করা রানীর সঙ্গে হ্যান্ডশেক করেন। দশ অধিনায়কের প্রত্যেকের কাছে এসে রানী এলিজাবেথ তাদের সঙ্গে কথা বলেন। হাসিমুখে পরিচিত হন।

রানী এলিজাবেথ ক্রিকেট অধিনায়কদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষ করার পরপরই ডিউক অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারি সামনে এগিয়ে আসেন। তিনি সব অধিনায়কদের সঙ্গে পরিচিত হন। এবং যথারীতি হ্যান্ডশেক করেন। প্রিন্স হ্যারি প্রত্যেক দলের অধিনায়কদের এই টুর্নামেন্টে সাফল্য কামনা করেন।

ইংরেজি বর্ণের আদ্যক্ষর অনুযায়ী দেশের নাম অনুসারে অধিনায়করা সারিবদ্ধভাবে দাড়ান। আফগানিস্তানের পরে অস্ট্রেলিয়া এবং তৃতীয় অবস্থানে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মতুর্জা দাড়িয়ে ছিলেন। হাস্যজ্জ্বল ভঙ্গিতে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ সবার সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/30/1559154955485.jpg

ক্রিকেট দলের অধিনায়করা প্যালেসের ঐতিহ্য অনুযায়ী সবাই স্যুট পরে এই পরিচিতি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা পরেছিলেন কালো রংয়ের স্যুট। সাদা শার্টের সঙ্গে সবুজ টাইয়ে হাস্যজ্জ্বল মাশরাফি পুরো অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

বাকিংহ্যাম প্যালেসে রানীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে ১০ অধিনায়ক বুধবার চলে গেলেন বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। এবার লন্ডনের দ্য মলে অন্যরকম এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখল ক্রিকেট বিশ্ব। ক্রীড়া আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় স্টেডিয়াম বা স্টেডিয়াম চত্বরে। কিন্তু আইসিসি লন্ডনের মল চত্বরে ব্যতিক্রমী এক আয়োজনে মুগ্ধ করল সবাইকে।  একঘণ্টা ২০ মিনিটের এই অনুষ্ঠানে ক্রিকেট উদযাপন, সঙ্গীতের নান্দনিক পরিবেশনা ছিল।

অন্যরকম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ইঙ্গিত ছিল আগেই। তবে এভাবে ‘ওপেনিং পার্টি’ দিয়ে চমকে দেবে আয়োজক ইংল্যান্ড ভাবা যায়নি। বাকিংহ্যাম প্যালেসের উল্টো দিকেই লন্ডন মল। যার সঙ্গে আবেগ আর ইতিহাস জড়িয়ে আছে ব্রিটিশদের। তাদের ঐতিহ্যের অংশ হয়ে আছে এই মল। এ কারণেই আইসিসি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ভেন্যু হিসেবে বেছে নেওয়া নেয় এই মলটিকে।

ভিন্ন ধাঁচের আয়োজনে বিশ্বকাপ খেলুড়ে দশ দেশের জন্য ছিল ৬০ সেকেন্ডের অভিনব স্ট্রিট ক্রিকেট। প্রতি দেশের একজন করে ক্রিকেটার ও একজন তারকা অংশ নিয়েছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে ছিলেন স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক ও তারকা অভিনেত্রী জয়া আহসান।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/30/1559154973467.jpg

ভারতের হয়ে মজার সেই ক্রিকেটে ব্যাট করেন বলিউড অভিনেতা ও পরিচালক ফারহান আখতার এবং সাবেক তারকা ক্রিকেটার অনিল কুম্বলে। পাকিস্তানের পক্ষে দেখা যায় আজহার আলী ও নোবেল বিজয়ী মালালা ইউসুফ জাইকে। পুরো অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন ইংল্যান্ডের সাবেক অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ।

উদ্বোধনী পর্ব শেষ। এবার মাঠের লড়াই। বৃহস্পতিবার ওভালে দ্বাদশ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

আপনার মতামত লিখুন :

শ্রীলঙ্কা সফরে তামিম অধিনায়ক

শ্রীলঙ্কা সফরে তামিম অধিনায়ক
মাশরাফির ইনজুরিতে নেতৃত্বে তামিম

শনিবার দুপুরে শ্রীলঙ্কার পথে দেশ ছাড়ার কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। তিন ওয়ানডের মিশন। কিন্তু তার আগে জাতীয় দলে বড় রকমের পরিবর্তন! ইনজুরিতে সফর থেকে ছিটকে গেলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। নতুন করে চোটে পড়ে সফর শেষ অধিনায়কের। বাধ্য হয়েই তার বিকল্প খুঁজে নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

তিন ম্যাচ ওয়ানডের এই সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দেবেন অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবাল। শুক্রবার রাতে তাকে নেতৃত্ব দিয়েছে বিসিবি।

আর মাশরাফির ইনজুরিতে দলে জায়গা পেলেন অলরাউন্ডার ফরহাদ রেজা। লঙ্কান সফরে দলে নেই মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও। তার বদলে নির্বাচক সুযোগ দিলেন পেসার তাসকিন আহমেদকে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলন করতে গিয়ে চোট পান মাশরাফি। চোট গুরুতর। এ অবস্থায় শ্রীলঙ্কায় যাওয়া হচ্ছে না। বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী গণমাধ্যমে জানান, ‘মাশরাফি সিরিজ থেকে ছিটকে পড়েছে। চোট থেকে সেরে উঠতে কমপক্ষে তিন সপ্তাহ লাগবে।’

আগামী ২৩ জুলাই খেলবে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে শ্রীলঙ্কা সফর। এরপর আগামী ২৬, ২৮ ও ৩১ জুলাই স্বাগতিকদের সঙ্গে তিনটি ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ।

ওয়ানডের বাংলাদেশ দল-
তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ মিঠুন, তাসকিন আহমেদ, মুশফিকুর রহিম, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকার, ফরহাদ রেজা, মোসাদ্দেক হোসেন, তাইজুল ইসলাম, এনামুল হক।

ইনজুরিতে শ্রীলঙ্কা সফর শেষ মাশরাফির

ইনজুরিতে শ্রীলঙ্কা সফর শেষ মাশরাফির
শ্রীলঙ্কা সফরে যেতে পারছেন না মাশরাফি

হঠাৎ করেই দুঃসংবাদ! দল শ্রীলঙ্কায় তিনটি ওয়ানডে খেলতে দেশ ছাড়বে শনিবার দুপুরে। তার আগে শুক্রবার জানা গেল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ইনজুরিতে। আর সেই চোট একেবারে মামুলি নয়। নতুন চোটে রীতিমতো তার শ্রীলঙ্কা সফরটাই শেষ।

শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সন্ধ্যায় অনুশীলন করতে গিয়ে চোট পেয়েছেন মাশরাফি। এরপরই জানা গেছে-আগের জায়গাতেই নতুন করে চোট পেলেন তিনি। চোট গুরুতর। এ অবস্থায় শ্রীলঙ্কায় যাওয়া হচ্ছে না। এমনই ইঙ্গিত টিম ম্যানেজম্যান্টের!

বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী গণমাধ্যমে জানান, ‘মাশরাফি সিরিজ থেকে ছিটকে পড়েছে। চোট থেকে সেরে উঠতে কমপক্ষে তিন থেকে চার সপ্তাহ লাগবে।’ 

২০১৪ সালে নেতৃত্ব পেয়ে চোট সামলে বেশ খেলছিলেন মাশরাফি। ইনজুরিতে এরপর  কোনো ম্যাচ মিস করেননি। হ্যামস্ট্রিংয়ের সঙ্গে লড়ে খেলিছেলন বিশ্বকাপে। কিন্তু এবার চলে গেলেন মাঠের বাইরে!

এর আগে সংবাদ সম্মেলনে যদিও মাশরাফি জানিয়ে দেন, দলের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা সফরে তিনি যাচ্ছেন। আর এটাই নিজের শেষ বিশ্বকাপ কীনা এনিয়ে টাইগার ক্যাপ্টেন সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমারটা আমি বলতে পারছি না।অবসর নিয়ে চিন্তা করিনি। খেলতে যাচ্ছি শ্রীলঙ্কায়, খেলা নিয়ে চিন্তা করছি। আমার কাছে খেলাটা ছাড়া অনেক বড় ব্যাপার।’

তবে জানিয়ে রাখলেই খেলোয়াড় হিসেবে এটিই তার শেষ লঙ্কা সফর। বলেন ‘এটা বলতে পারি-শ্রীলঙ্কায় আমার শেষ সফর। যেহেতু অনেক দিন খেলানেই। শ্রীলঙ্কায় শেষবারের মতো যাচ্ছি, বিশ্বকাপের আগে যেভাবে বলেছিলাম, সেভাবেই বলছি। আসার পর হয়তো সময় পাব।’

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপটের সময়ই ভাসছিল মাশরাফির অবসর গুঞ্জন। টুর্নামেন্টে মাত্র ১ উইকেট শিকার করে সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। অনেকে মনে করেছিলৈন ফিরেই অবসর নেবেন। তবে হাল ছাড়ছেন না ৩৫ বছর বয়সী এই তারকা।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতা প্রসঙ্গে আরো একবার বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট জানি, ১৮ বছর ক্রিকেট খেলছি। মানুষ খুব দ্রুত প্রশ্ন করা শুরু করবে। প্রত্যাশা পূরণ না হলে আমার মন খারাপ তো হবেই। তবে এখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর মানসিকতাও আছে। যেটা আগে করেছি। অনেক টুর্নামেন্টে দল হিসেবে হারানোর কিছু নেই। আমারও তাই হারানোর কিছু নেই।’

২৩ জুলাই খেলবে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে শ্রীলঙ্কা সফর। এরপর আগামী ২৬, ২৮ ও ৩১ জুলাই স্বাগতিকদের সঙ্গে তিনটি ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র