Alexa

অনুশীলনের মাঠ নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার অভিযোগ

অনুশীলনের মাঠ নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার অভিযোগ

বিশ্বকাপ মিশনের আগে প্রস্তুতিতে সমস্যা হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের -ফাইল ছবি

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা। ৩০ মে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেই ম্যাচকে ঘিরে জোরদার প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা এখন কার্ডিফে। তবে অনুশীলনের মাঠ নিয়ে অসন্তোষ জানিয়েছে দক্ষিন আফ্রিকা। কার্ডিফের ক্যাথেড্রেল স্কুলের মাঠ ফিল্ডিংয়ের জন্য মোটে আদর্শ কিছু নয়-এমনতর অভিযোগ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ফিল্ডিং কোচ জাস্টিন অনটং।

এই মাঠে গ্রাউন্ড ফিল্ডিং করতে গিয়ে বেশ সমস্যায় পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা দল। মাঠের অনেক জায়গা অসমতল থাকায় বল ধরতে ফিল্ডারদের বেশ সমস্যা হয়। শরীর বাঁচিয়ে ফিল্ডিং অনুশীলন করতে হয়। অনটং অভিযোগের সুরে বলছিলেন-‘মাঠের আউটফিল্ড ক্রিকেটের জন্য আদর্শ ছিলো না। বেশ উচুঁনিচু ছিলো। তবে হ্যাঁ, থাকার জন্য জায়গাটা বেশ সুন্দর।’

এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিট ট্যাগ ছাড়াই খেলতে এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। মারদাঙ্গা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সকে ছাড়াই খেলছে এই বিশ্বকাপ। ডি ভিলিয়ার্স আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার এই দলে ভারত বা ইংল্যান্ডের মতো তেমন শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ নেই। দলের স্ট্রাইক বোলার হিসেবে থাকছেন ডেল স্টেইন ও কাগিসো রাবাদা। তবে এই দুজনেই ইনজুরি থেকে উঠে এসেছেন মাত্র। দলের ফিল্ডিং কোচ অনটং বলছিলেন-‘আমরা এই টুর্নামেন্টের সেরা ফিল্ডিং দল হিসেবে নিজেদের প্রমান করতে চাই। ফিল্ডিং ঠিক রাখার জন্য আমরা সবসময়ে বাড়তি চেষ্টা করে থাকি। বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে ফিল্ডিং যে কোনো দলের জন্য বড় ভুমিকা রাখতে পারে।’

২০ বছর আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে শেষবারের বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার কপাল পুড়েছিলো কিন্তু এই বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণেই। টুর্নামেন্টের সুপার সিক্সের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ’র ক্যাচ হাতে নিয়েও ফেলে দিয়েছিলেন হার্সেল গিবস। সেই ম্যাচে স্টিভ ওয়াহ অপরাজিত সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকার ২৭১ রান টপকে যায় অস্ট্রেলিয়া।

হার্সেল গিবসের সেই ক্যাচ মিসকেই বিশ্বকাপ থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিদায়ের অন্যতম কারণ বলে মানা হয়। অমন ভুল যেন এবার না হয়- সেজন্যই টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ফিল্ডিং নিয়ে বাড়তি তোড়জোড় দক্ষিণ আফ্রিকার।

আপনার মতামত লিখুন :