Alexa

কথা হারিয়ে ফেলেছেন টটেনহ্যাম কোচ!

কথা হারিয়ে ফেলেছেন টটেনহ্যাম কোচ!

শিষ্যদের সঙ্গে স্বপ্নপূরণের আনন্দে ভাসছেন মাওরিসিও পচেত্তিনো

হাল ছেড়ে না দিলে সবই সম্ভব। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছিল টটেনহ্যাম হটস্পারের। ঘুরে দাঁড়ানো ছাড়া কোন উপায় ছিল না! তবে সমীকরণ মেলানো সহজ ছিল না! প্রথম লেগে হার। এরপর বুধবার রাতে ফিরতে লেগে ০-১ গোলে পিছিয়ে পড়ে ফাইনাল দুর আকাশের তারা হয়ে উঠেছিল! কিন্তু ফুটবলে বুঝি সব সম্ভব! আয়াক্সের বিপক্ষে দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়াল স্পার্স। তুলে ৩-২ গোলের জয়। অ্যাওয়ে গোলে এগিয়ে থেকে ফাইনালে ওঠে গেল টটেনহ্যাম।

বুধবার রাতে ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় সেমি-ফাইনালের এই রোমাঞ্চের পর আনন্দে কাঁদলেন মাওরিসিও পচেত্তিনো। তার হাত ধরেই যে ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টটেনহ্যাম জায়গা করে নিয়েছে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে।

ইনজুরি সময়ে লুকাস মউরা গোলটি করতেই খুশিতে চোখের জল ফেললেন টটেনহ্যাম কোচ। শেষ বাঁশি বাজতেই জড়িয়ে ধরেন প্রিয় শিষ্যদের। রূপকথার মতো এক জয়ের আনন্দ নিয়ে আর্জেন্টাইন পচেত্তিনো বলছিলেন, ‘কী বলবো বুঝতে পারছি না। কথা হারিয়ে ফেলেছি আমি। এমন মুহূর্তে কথা বলাটাই মুশকিল। আবেগ আর অনুভূতির কথা যদি বলুন-তা বোঝাতে পারবো না। এক কথায় অসাধারণ। এমন আকাশ ছোঁয়া আবেগ আর রোমাঞ্চ ফুটবল ছাড়া আর কোথাও সম্ভব নয়।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/09/1557383856222.jpg

সত্যিই তাই। ফুটবলে যেন সবই সম্ভব। মঙ্গলবারই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ইতিহাস গড়েছে লিভারপুল। সেমির প্রথম লেগে ০-৩ গোলে হারের ধাক্কা সামলে দ্বিতীয় লেগে দলটি ৪-০ গোলে হারিয়েছে বার্সেলোনাকে। সেই বিস্ময়ের রেশ থাকতেই চমকে দিয়েছে টটেনহ্যাম।

শিষ্যদের প্রশংসাতেও মাতলেন মাওরিসিও পচেত্তিনো। স্পার্স কোচ বলেন, ‘দেখুন, আমার ছেলেরা প্রত্যেকেই হিরো। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ওরা স্বপ্নের ফুটবল খেলেছে! অসাধারণ। যারা আমাদের উপর আস্থা রেখেছিল তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/09/1557383881321.jpg

এবার শিরোপার লড়াই। অল ইংল্যান্ড ফাইনালের অপেক্ষায় ভক্তরা। ১ জুন মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেট্রোপলিটনে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে প্রিমিয়ার লিগের দুই ক্লাব লিভারপুল ও টটেনহ্যাম হটস্পার।

২০০৭-০৮ মৌসুমের পর ফের ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ টুর্নামেন্টে অল ইংল্যান্ড ফাইনাল। সেবার লড়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও চেলসি।

আরো পড়ুন-

মউরার হ্যাটট্রিকে ফাইনালে টটেনহ্যাম

আপনার মতামত লিখুন :