Barta24

শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ডাবল সেঞ্চুরির ‘গল্পটা’ শোনালেন সৌম্য

ডাবল সেঞ্চুরির ‘গল্পটা’ শোনালেন সৌম্য
ইতিহাস গড়লেন সৌম্য সরকার
এম. এম. কায়সার
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

ত্রৈমাসিকে ভাল ফল নয়। অর্ধবার্ষিকীর ফলও সন্তোষজনক কিছু নয়। কিন্তু বার্ষিক পরীক্ষার ফল যখন বেরুলো দেখা গেলো-ছেলেটা সবাইকে ছাড়িয়ে প্রথম স্থান অধিকার করে বসেছে!

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে নিজের পারফরমেন্সকে ঠিক এমন বিস্ময়কর ব্যাখায় ফেলতে পারেন সৌম্য সরকার। টুর্নামেন্টের শেষ দুই ম্যাচের আগে তার ফর্ম নিয়ে সবাই এতোই দুঃশ্চিন্তায় ছিলো প্রতিদিনই সৌম্য সম্পর্কে বিষয় শেষ হতো একটা প্রশ্নে-‘ছেলেটা ফর্মে নেই। কি যে হবে?’

পরিসংখ্যান জানাচ্ছে লিগে নিজের প্রথম ১১ ম্যাচে সৌম্যের ব্যাটে বলার মতো কোন রান নেই। ম্যাচ জয়ী ইনিংস তো দুরের কথা! কোন হাফসেঞ্চুরি পর্যন্ত নেই। সর্বোচ্চ রান ছিলো ৪৩। বেশ কয়েকটি ম্যাচে শুরুটা ভালো হলেও ৩০/৪০ এর ঘরে শেষ সেই ভালো ইনিংস। তাই প্রায় প্রতি ম্যাচ শেষেই সৌম্য ফিরছেন মাথায় দুঃশ্চিন্তা নিয়ে এবং বাকিদের দুঃশ্চিন্তা বাড়িয়ে!

তবে সবার চিন্তা দুর করে দিলেন সৌম্য লিগের শেষ দুই ম্যাচে। এই দুই ম্যাচেই সেঞ্চুরি। দুই ম্যাচেই ম্যাচসেরা। রূপগঞ্জকে হারানোর ম্যাচে ১০৬ রান। আবাহনী জিতলো সেই ম্যাচ বড় ব্যবধানে। আর মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) লিগের শেষ ম্যাচে সৌম্য ব্যাট হাতে যা করলেন তাতেই রচিত বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে নতুন ইতিহাস।

করলেন ডাবল সেঞ্চুরি। হাঁকালেন রেকর্ড ১৬ ছক্কা। আবাহনী এই ম্যাচও জিতলো সহজেই। এবং ট্রফি নিয়ে উল্লাস মাতলো দল। ম্যাচ শেষে নিজের বাজে সময় এবং ভালো সময়ের ব্যাখায় সৌম্য সরকার বলছিলেন-‘আমার ব্যাটিংয়ের কোন কিছু বদল হয়নি। আমার ব্যাটিং আমার কাছেই আছে। আগের ম্যাচগুলোয় রান করিনি। এখন করছি। আক্ষেপ হচ্ছিলো শুরুতে ৩০/৪০ রান করে আউট হচ্ছিলাম। মাঝে কিছু ম্যাচে ১,২, ০ রানেও আউট হয়েছি। পরে মনে হলো, ১,২ বা শূন্য রানের চেয়ে ৩০/৪০ রান ভালো। ওটাতে আগে ফিরতে হবে। যখন ৩০/৪০ রান করেছি, তখন মনে হয়েছে আজ এই রানে আর ফেরা যাবে না। আজ ৫০ করতেই হবে। এভাবেই মাঠেই পরিকল্পনা করেছি। আগে থেকে পরিকল্পনা করে গেলে কিছুই হচ্ছিলো না যে! এই ম্যাচে উইকেট ভালো ছিলো। সুযোগ ছিলো বড় রান করার।’

ওয়ানডে ম্যাচে খেলতে নামলে সবাই হয়তো বড় রানের স্বপ্নই দেখে। সেঞ্চুরির চিন্তা করে। কিন্তু তাই বলে একেবারে ডাবল সেঞ্চুরি! সৌম্যের এমন কোনো চিন্তা ছিলো না-‘১৯০ রানের আগ পর্যন্ত তো ডাবল সেঞ্চুরির চিন্তাই ছিলো না। তারপর থেকে একটু একটু করে স্বপ্নটা এলো। তখন মনে হলো না, এই সুযোগ ছাড়া যাবে না। যে কোনো উপায়ে করতেই হবে। একটু নার্ভাসনেসও কাজ করছিলো। শেষ পর্যন্ত তো হয়েই গেলো।’

১৫৩ বলে অপরাজিত ২০৮ রান। ১৪ বাউন্ডারি ও ১৬ ছক্কার সৌম্য সরকারের এই ইনিংস বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে গল্প করার মতো অনেক উপাদান রেখে গেলো!

আপনার মতামত লিখুন :

ছুটির দিনে টিভিতে যত খেলার আয়োজন

ছুটির দিনে টিভিতে যত খেলার আয়োজন
ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপের ফাইনালে লড়বে তাজিকিস্তান-উত্তর কোরিয়া

ওয়ানডে বিশ্বকাপ শেষ। টেলিভিশনের পর্দাতেও শেষ ইংল্যান্ড ও ওয়েলস অনুষ্ঠিত এই বিশ্বসেরার রােমাঞ্চ। তবে আজ শুক্রবার ছুটির দিন দর্শকদের জন্য থাকছে ফুটবল উন্মাদনা। ইন্টারকন্টিনেল্টাল কাপ ফাইনালে তাজিকিস্তানের মুখোমুখি হবে উত্তর কোরিয়া। ম্যাচটি সরাসরি টেলিভিশনের পর্দায় দেখা যাবে রাত সাড়ে ৮টা থেকে। 

ব্যাডমিন্টন ওয়ার্ল্ড ট্যুরের লড়াই দেখার সুযোগ থাকছে ক্রীড়াপ্রেমীদের জন্য। ব্যাডমিন্টন লড়াই দর্শকরা সরাসরি টেলিভিশনের পর্দায় উপভোগ করতে পারবেন বেলা ১১টা থেকে।

টেনিস অনুরাগীদের মন খারাপ করার কিছু নেই। তাদের জন্যও থাকছে উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ হাইলাইটস।

চলুন দেখে নেই শুক্রবার টেলিভিশনের পর্দায় কখন কী থাকছে-

ক্রিকেট
অ্যাশেজ রিওয়াইন্ড
বিকেল সাড়ে চারটা
সনি টেন ৩

ফুটবল
ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ ফাইনাল
তাজিকিস্তান-উত্তর কোরিয়া
সরাসরি রাত সাড়ে ৮টা
স্টার স্পোর্টস ওয়ান এশিয়া ও টু

ব্যাডমিন্টন
এইচএসবিসি বিডব্লিউএফ ওয়ার্ল্ড ট্যুর ২০১৯
সরাসরি বেলা ১১টা
স্টার স্পোর্টস ওয়ান

টেনিস
উইম্বলডন, হাইলাইটস
সকাল সাড়ে ৯টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ওয়ান

সদস্য পদ স্থগিতে ক্রিকেটের বাইরে জিম্বাবুয়ে

সদস্য পদ স্থগিতে ক্রিকেটের বাইরে জিম্বাবুয়ে
বিপাকে পড়লেন জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটাররা

থমকে গেল জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট। এখন আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশ নিতে পারবে না টেস্ট খেলুড়ে এই দেশটি। জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ স্থগিত করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

দেশটির বোর্ডে সরকারের রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের পরই এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। বোর্ড পরিচালনায় সরকারের হস্তক্ষেপ না থাকার বিষয়টি প্রমাণ দিতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। যা কীনা আইসিসি’র সংবিধান লঙ্ঘন। এ কারণে বৃহস্পতিবার লন্ডনে আইসিসির বোর্ড সভায় স্থগিত করা হয় জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানিয়েছে, ‘আইসিসির পূর্ণ সদস্য দেশ জিম্বাবুয়ে। এ অবস্থায় তাদের বোর্ড পরিচালনা ও প্রশাসনে সরকারের হস্তক্ষেপ না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত থাকতে হবে। অবাধ ও গণতান্ত্রিক নির্বাচনের বিধানও থাকতে হবে। কিন্তু জিম্বাবুয়ে এই বিধি মানেনি। এ কারণেই দেশটির সদস্য পদ স্থগিত করা হয়েছে। এই জুনে জিম্বাবুয়ে সরকার তাদের ক্রিকেট বোর্ডের সদস্যদের বহিষ্কার করে। তারপর থেকেই দেশটির ক্রিকেটে নজর রেখেছে আইসিসি।’

গত জুনে জিম্বাবুয়ে সরকার তাদের দেশের ক্রিকেট বোর্ড বিলুপ্ত ঘোষণা করে একটি মধ্যবর্তী কমিটি করে দিতেই কঠোর অবস্থানে যায় আইসিসি। বলা হচ্ছে, আইসিসির গঠনতন্ত্রের ২.৪ (গ) এবং (ঘ) ধারা অমান্য করার কারণেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর স্পষ্ট জানিয়ে রাখলেন, ‘আমরা ক্রীড়াঙ্গনকে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের বাইরে রাখতে চাই। কিন্তু জিম্বাবুয়ে যা হয়েছে তা আইসিসির গঠনতন্ত্রের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এমনটা আমরা হতে দিতে পারি না।’

এমন স্থগিতাদেশের পর থমকে যাবে জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট। তারা আইসিসি'র কোনো ইভেন্টে অংশ নিতে পারবে না। জাতীয় দল ও বয়সভিত্তিক কোনো দল দলের ক্রিকেট বন্ধই হয়ে গেল। এমন কী আইসিসির কাছ থেকে কোন অর্থও পাবে না তারা। অক্টোবরে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে খেলাটাও অনিশ্চিত হয়ে গেল জিম্বাবুয়ের।

তবে এই অবস্থা থেকে মুক্তির রাস্তাও দেখিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। তারা জানিয়েছে-আগামী তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন দিলে আর নির্বাচিত কমিটি বোর্ডের দায়িত্ব নিতে পারলেই স্থগিতাদেশ তুলে নিতে পারে আইসিসি। তবে অক্টোবরের বোর্ড মিটিংয়ে আগে সুখবর পাবে না আফ্রিকার এই দেশটি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র