Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

কলকাতায় বেঙ্গল ওপেন গলফ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের জামাল

কলকাতায় বেঙ্গল ওপেন গলফ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের জামাল
গলফার মো. জামাল হোসেন মোল্লা, ছবি: সংগৃহীত
সেন্ট্রাল ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

কলকাতায় বাংলাদেশি পেশাদার গলফার মো. জামাল হোসেন মোল্লা শেষ দিনে ৬৩ স্কোর করে বেঙ্গল ওপেন গলফ চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। তিনি বিগত সাত বছরে বাংলাদেশের বাইরে জয় না পাওয়ার রেকর্ড ভঙ্গ করেছেন। পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন কর্তৃপক্ষ এবং টালিগঞ্জ ক্লাব এই চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজন করে।

বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান রানার গ্রুপ জামাল হোসেন মোল্লাকে আট বছর ধরে স্পন্সর করছে। ৩৪ বছর বয়সী জামাল এই টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল ধীর গতিতে, শেষের দুই দিন তিনি দুর্দান্ত খেলে জয় ছিনিয়ে নেন।

টুর্নামেন্টের মাঝামাঝি পর্যায়ে ৬৮ এবং ৬৯ স্কোর করে তিনি ৩৯ তম স্থানে অবস্থান করনে। পরের দুই দিন ৬২ ও ৬৩ স্কোর করে পদক জয় করেন। তিনি এর আগে ২০০৯ সালে অপেশাদার গলফার হিসেবে বাংলাদেশ ওপেন চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছিলেন। তিনি ২০১২ সালে আবারও একই প্রতিযোগিতা একজন পেশাদার গলফার হিসেবে জিতেন।

এবারের এই বিজয় জামালকে পিজিটিআই অর্ডার অফ মেরিটে ৪৬তম স্থান থেকে ষষ্ঠ স্থানে উত্তীর্ণ করে। তিনি এই টুর্নামেন্ট জয় করে পুরস্কার হিসাবে ৪.৮৪ লাখ রুপি আয় করেন।

মো. সিদ্দিকুর রহমানের পর বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বাধিক সফল গলফার জামাল বলেন, ‘অনেক দিন পর আবার ফর্ম ফিরে পেয়েছি। যা টুর্নামেন্টের শেষের দুই দিন আমার খেলায় ফুটে উঠেছে। প্রথম দুই রাউন্ডে আমি সাতটি পাটিং মিস করেছি। কিন্তু তৃতীয় রাউন্ড থেকে পরিস্থিতি আমার পক্ষে চলে আসে। আমি আমার এই ফর্ম এবং আস্থা ইন্ডিয়ান ওপেনে (যা দুই সপ্তাহ পর শুরু হবে) ধরে রাখতে পারব, ইনশাল্লাহ এবং আগামী মাসে বাংলাদেশে অনুষ্ঠেয় এশিয়ান ট্যুরেও সাফল্য আনতে পারব বলে আশা করি।’

আপনার মতামত লিখুন :

করুনারত্নের সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার অনায়াস জয়

করুনারত্নের সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার অনায়াস জয়
সেঞ্চুরির পর দুহাত উঁচিয়ে শ্রীলঙ্কার জয়ের নায়ক ম্যাচসেরা দিমুথ করুনারত্নের উদযাপন , ছবি: সংগৃহীত

দাপুটে এক সেঞ্চুরি হাঁকালেন অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। তার অধিনায়কোচিত ব্যাটিং পারফরম্যান্সের ওপর ভর করে প্রথম টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে অনায়াসে ৬ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। এনিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে জয় দিয়ে শুভ সূচনা করল স্বাগতিকরা। দুই টেস্টের সিরিজে এগিয়ে গেল ১-০ ব্যবধানে।

গলে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছতে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৪ উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। তাদের আগে নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮৫ রানে অল-আউট হলে ২৬৮ রানের সহজ লক্ষ্য পায় লঙ্কানরা।

আসলে চতুর্থ দিনেই জয়ের ভিত গড়ে দেন দুই ওপেনার করুনারত্নে ও লাহিরু থিরিমান্নে। উদ্বোধনী জুটি ১৩৩ রানে অবিচ্ছিন্ন থেকে রোববার সকালে পঞ্চম ও শেষ দিনের খেলা শুরু করেন। শেষে ১৬১ রানে ভাঙে তাদের পার্টনারশিপ।

ব্যক্তিগত ৭১ রানের ইনিংসটাকে শতকে রূপ দেন করুনারত্নে। পঞ্চম দিনে লঙ্কান ক্যাপ্টেন দলীয় স্কোরে যোগ করেন আরো ৫১ রান। দলকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়ে শেষমেশ ছয় চার ও এক ছক্কায় ১২২ রানে থামেন এ তারকা ওপেনার।

অপর উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান থিরিমান্নে সাজঘরে ফেরেন ৬৪ রানে। শেষ দিন তার ব্যাট থেকে আসে মাত্র ৭ রান।

কুসল পেরেরা (২৩) শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে না পারলেও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস (২৮*) ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা (১৪*) ঠিকই দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

লঙ্কানদের দ্বিতীয় ইনিংসে নির্বিষ বোলিং আক্রমণ দিয়ে কাজের কাজ কিছুই করতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। বল হাতে কেউ জ্বলে উঠতে পারেননি। মাত্র একটি করে উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদি, উইলিয়াম সমারভিলে ও আজাজ প্যাটেল।

স্পিন বিষ ছড়িয়ে আকিলা ধনাঞ্জয়া পাঁচ উইকেট শিকার করলে প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ড গুটিয়ে যায় ২৪৯ রানে। জবাবে প্রতিপক্ষের আজাজ প্যাটেল ঘূর্ণি জাদু দেখিয়ে নেন পাঁচ উইকেট। যে কারণে ব্যাটিংয়ে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি করুনারত্নের দল। প্রথম ইনিংসে সবকটি উইকেট হারিয়ে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৬৭। ফলে জমে উঠে ম্যাচ। কিন্তু শেষ দিকে আর সেভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি ব্ল্যাক ক্যাপস শিবির।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
নিউজিল্যান্ড: ২৪৯/১০ ও ২৮৫/১০ (ওয়াটলিং ৭৭, লাথাম ৪৫, সমারভিলে ৪০*; এমবুলদেনিয়া ৪/৯৯, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ২/২৫ ও কুমারা ২/৩১)

শ্রীলঙ্কা: ২৬৭/১০ ও ২৬৮/৪ (করুনারত্নে ১২২, থিরিমান্নে ৬৪; সাউদি ১/৩৩, বোল্ট ১/৩৪)

ফল: শ্রীলঙ্কা ৬ উইকেটে জয়ী।

সিরিজ: দুই টেস্টের সিরিজ ১-০ তে এগিয়ে শ্রীলঙ্কা।

ম্যাচসেরা: দিমুথ করুনারত্নে

প্রথম জয়ের খোঁজে ল্যাম্পার্ড

প্রথম জয়ের খোঁজে ল্যাম্পার্ড
লেস্টার সিটির মুখোমুখি আজ ল্যাম্পার্ডের চেলসি

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চেলসির কোচ হিসেবে অভিষেক হলেও এখনো জয়ের দেখা পাননি ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড। আজ রোববার ঘরের মাঠ স্টামফোর্ড ব্রিজে অভিষেকের রাতটা তাই স্মরণীয় করে রাখতে চান এই ইংলিশ কোচ। জয়ের রঙে রাঙিয়ে নিতে চান বিশেষ দিনক্ষণটা। 

ক্লাব চেলসির হয়ে প্রথম জয়ের খোঁজে কোচ ল্যাম্পার্ড আজ মাঠে নামাচ্ছেন সেরা একাদশ। রাত সাড়ে ৯টায় লেস্টার সিটিকে নিজেদের মাঠে আতিথ্য দিবে দ্য ব্লুজ শিবির।

এদিকে লা লিগার নতুন মৌসুমে নতুন মিশন শুরু করছে আজ কোচ দিয়েগো সিমিওনের অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। নিজেদের মাঠে নবাগত স্ট্রাইকার জোয়াও ফেলিক্সকে আক্রমণে রেখে তারা লড়বে গেতাফের বিপক্ষে।

অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ-গেতাফের লড়াই ক্রীড়াপ্রেমীরা টিভিতে সরাসরি উপভোগ করবেন রাত ২টা থেকে। ফরাসি লিগ ওয়ানে নেইমারকে ছাড়াই রেঁনের মাঠ সফরে যাচ্ছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি )।

ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার অ্যাশেজ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিনের লাল বলের লড়াই শুরু বিকেল ৪টা থেকে। গল টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিনে আজ সকাল সাড়ে ১০টায় জয়ের লক্ষ্য নিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে শ্রীলঙ্কা।

দর্শকদের জন্য থাকছে কাবাডির লড়াইও। প্রো-কাবাডি লিগের ম্যাচ সরাসরি দর্শকরা টেলিভিশনের পর্দায় উপভোগ করতে পারবেন রাত ৮টা থেকে।

চলুন দেখে নেই রোববার টেলিভিশনের পর্দায় কখন কী থাকছে-

ফুটবল
ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
শেফিল্ড ইউনাইটেড-ক্রিস্টাল প্যালেস
সরাসরি সন্ধ্যা ৭টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট এইচডি ওয়ান

চেলসি-লেস্টার সিটি
সরাসরি রাত সাড়ে ৯টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট এইচডি ওয়ান

লা লিগা
আলাভেজ-লেভান্তে
সরাসরি রাত ৯টা
ফেসবুক লাইভ

এসপানিওল-সেভিয়া
সরাসরি রাত ১১টা
ফেসবুক লাইভ

রিয়াল বেটিস-রিয়াল ভ্যালাদোলিদ
সরাসরি রাত ১টা
ফেসবুক লাইভ

অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ-গেতাফে
সরাসরি রাত ২টা
ফেসবুক লাইভ

বুন্দেসলিগা
ফ্রাঙ্কফুর্ট-হোফেনহেইম
সরাসরি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট এইচডি টু

ইউনিয়ন বার্লিন-আরবি লিপজিগ
সরাসরি রাত ১০টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট এইচডি টু

ফরাসি লিগ ওয়ান
রেঁনে-পিএসজি
সরাসরি রাত ১টা
বেট৩৬৫

ক্রিকেট
অ্যাশেজ সিরিজ
ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া
দ্বিতীয় টেস্ট, পঞ্চম দিন
সরাসরি বিকেল ৪টা
সনি সিক্স ও সনি টেন টু

শ্রীলঙ্কা-নিউজিল্যান্ড
প্রথম টেস্ট, পঞ্চম দিন
সরাসরি সকাল সাড়ে ১০টা
সনি সিক্স, সনি টেন থ্রি ও জিটিভি

কাবাডি
প্রো-কাবাডি লিগ
সরাসরি রাত ৮টা
স্টার স্পোর্টস টু

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র