Barta24

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

জিতলেই সেমিতে মেয়েরা

জিতলেই সেমিতে মেয়েরা
ভুটানকে হারালেই শেষ চারে উঠে যাবে মেয়েরা -ছবি: বাফুফে
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বয়স ভিত্তিক ফুটবলে দাপটে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা। এবার আরো একটি সাফল্যের হাতছানি মেয়েদের সামনে। নেপালের বিরাটনগরে ভুটানকে হারালেই সেমি-ফাইনালে উঠে যাবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বেলা ৩টায় ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানের সঙ্গে লড়বে গতবারের রানার্সআপ বাংলাদেশ। তিন দলের গ্রুপে জয়ে শুরু করতে পারলেই দল পেয়ে যাবে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেরা চারের টিকিট।

পঞ্চম সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের বল মাঠে গড়িয়েছে একদিন আগেই। তবে বাংলাদেশের মিশন শুরু বৃহস্পতিবার। আত্মবিশ্বাস নিয়েই নতুন এই মিশনে খেলতে গেছে মেয়েরা। কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন জানিয়েছেন, এবার তার শিষ্যদের প্রাথমিক লক্ষ্য সেমিফাইনাল। বলেন, ‘দেখুন, আমাদের প্রথম লক্ষ্য ভালোভাবে গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে সেমি-ফাইনালে ওঠা। আমরা গতবারের রানার্সআপ, তারপরও সেমির পর ফাইনাল নিয়ে ভাবব।’

ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে বাংলাদেশের মেয়েরা গত দুদিন ধরে স্থানীয় জুট মিলস মাঠে আর বুধবার সকালে মূল ভেন্যুতে অনুশীলন করেছে।

এবারের সাফের প্রথম ম্যাচে নেপালের কাছে ৩-০ গোলে হার দিয়ে শুরু করেছে ভুটান। সেই দলটির সঙ্গে লড়াইয়ের আগে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক সাবিনা খাতুন জানালেন, ‘নেপালের আবহাওয়া ও খাবারের সঙ্গে এরইমধ্যে আমরা মানিয়ে নিয়েছি। এখন আমাদের মনোযোগ প্রথম ম্যাচকে ঘিরে। আশা করি দলের সবার মনোবল ও আত্মবিশ্বাস চাঙ্গা। এই আসরে ভাল ফল করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ আমরা।’

এবারের সাফে ‘এ’ গ্রুপে খেলছে বাংলাদেশ। মেয়েদের প্রতিপক্ষ ভুটান ও স্বাগতিক নেপাল। গত চার আসরের চ্যাম্পিয়ন ভারত ‘বি’ গ্রুপে লড়বে শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপের বিপক্ষে।

বাংলাদেশ দল-

মাহমুদা আক্তার, রুপনা চাকমা, ইয়াসমিন আক্তার, মাসুরা পারভীন, আঁখি খাতুন, নার্গিস খাতুন, নিলুফা ইয়াসমিন নীলা, শামসুন্নাহার (সিনিয়র), শিউলি আজিম, মিশরাত জাহান মৌসুমী, মারিয়া মান্ডা, মনিকা চাকমা, ইশরাত জাহান রত্না, সানজিদা আক্তার, মার্জিয়া, সিরাত জাহান স্বপ্না, সাবিনা খাতুন, কৃষ্ণা রানী সরকার, রাজিয়া খাতুন ও তহুরা খাতুন

আপনার মতামত লিখুন :

ভাইয়ের মৃত্যুর শোক কাটিয়ে বিশ্বকাপ জয়

ভাইয়ের মৃত্যুর শোক কাটিয়ে বিশ্বকাপ জয়
বন্ধুসুলভ ভাইকে হারিয়ে হতবাক হয়ে পড়েন জোফরা আর্চার

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয় দিয়ে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ মিশন শুরুর পরই আসে খারাপ খবরটা। জোফরা আর্চার জানতে পারেন, তার প্রিয় চাচাতো ভাই আশান্টিও ব্ল্যাকম্যান আর নেই। সেন্ট ফিলিপে বাড়ির বাইরে দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হয়েছেন তিনি। বন্ধুসুলভ ভাইকে হারিয়ে হতবাক হয়ে যান এ তারকা ইংলিশ পেসার।

আর্চারের বাবা ফ্র্যাঙ্ক বলেন, ‘আর্চারের চাচাতো ভাইও তার সমবয়সী এবং তারা খুবই ঘনিষ্ঠ ছিল।  এমনকি মৃত্যুর আগের দিন আর্চারকে বার্তাও পাঠিয়েছিল তার ভাই। তার মৃত্যুতে সত্যিই ভেঙে পড়ে ছিল আর্চার।  কিন্তু পরে শোকটা কাটিয়ে উঠে এগিয়ে যায় ও।’

মনের মাঝে ভাই হারানোর বেদনা নিয়েও আর্চার খেলে গেছেন বিশ্বকাপে। শুধু খেলে যাননি, ইংল্যান্ড হিরো শোককে শক্তিতে রূপান্তর করে পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে রীতিমতো দ্যুতি ছড়িয়ে গেছেন আগুনে বোলিংয়ে।

১১ ইনিংসে ২০ উইকেট নিয়ে বার্বাডিয়ান বংশোদ্ভূত এ পেসার বনে গেছেন বিদায়ী বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। সুবাদে ইংল্যান্ডের প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ে রেখেছেন অগ্রণী ভূমিকা।

লর্ডসে নির্ধারিত ৫০ ওভারের খেলা শেষে ফাইনালটা ২৪১ রানে হয়ে যায় টাই।  ফলে ফাইনালের ভাগ্য গড়ায় সুপার ওভারে। সেই সুপার ওভারে বল করে নিউজিল্যান্ডকে জিততে দেননি আর্চার।  প্রতিপক্ষকে নিজেদের সমান ১৫ রানে আটকে রাখেন। ফলে সুপার ওভারেও টাই হলে বেশি বাউন্ডারি হাঁকানোর সুবাদে শিরোপা জিতে নেয় স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

ক্ষমা চাইলেই শাস্তি থেকে বাঁচবেন মেসি!

ক্ষমা চাইলেই শাস্তি থেকে বাঁচবেন মেসি!
বিপাকেই আছেন লিওনেল মেসি

দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা কনমেবলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বেকায়দায় পড়ে গেছেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন ফুটবল মহাতারকা রয়েছেন দুই বছরের নিষেধাজ্ঞার শঙ্কায়। তাহলে শাস্তি থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় কি? 

উপায়টা বাতলে দিয়েছেন- কোর্ট অব আর্বিট্রেশন ফর স্পোর্টের আর্জেন্টাইন কনমেবল সদস্য গুস্তাভো আব্রু।  বার্সেলোনা সুপারস্টারকে ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শই দিয়েছেন তিনি, ‘মেসিকে আমি ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শ দেবো। কারণ সংস্থাটি তাকে শাস্তি দিতে যাচ্ছে!’

সেমি-ফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হেরে কোপা আমেরিকা থেকে বিদায় নিয়ে মেসি দাবী করেন, ব্রাজিলকে চ্যাম্পিয়ন করতে সব রকম ব্যবস্থা করে রেখেছে কনমেবল।

অন্যায় না করেও চিলির বিপক্ষে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে এলএম টেন দেখেন লাল কার্ড। এরপর মেসি ফের দাবী করেন, বেফাঁস মন্তব্যের জন্যই তাকে এ শাস্তি দিয়েছে কনমেবল।

এদিকে বিশ্ব গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে একটি খবর, মেসির লাল কার্ডের শাস্তি বাতিলের জন্য কনমেবলের কাছে আপিল করেছে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)। এজন্য মেসির স্বাক্ষর সম্বলিত একটি লিখিত চিঠি পাঠিয়েছে তারা।

টানা দুই ফাইনালে চিলির কাছে ধরাশায়ী হওয়ার পর এবার শেষ চারেই ভাঙে মেসির দেশের হয়ে মেজর শিরোপা জয়ের স্বপ্ন। তারওপর এখন সামনে ঝুলছে শাস্তির খড়গ। তাই স্বাভাবিকভাবেই মন ভালো নেই পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই তারকা ফুটবলারের।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র