Barta24

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

আবাহনীকে পেছনে ফেলে শীর্ষে বসুন্ধরা

আবাহনীকে পেছনে ফেলে শীর্ষে বসুন্ধরা
ফের প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের শীর্ষে বসুন্ধরা
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

অভিষেকেই শিরোপা জয়ের পথে দাপটে এগিয়ে যাচ্ছে বসুন্ধরা কিংস। ফেভারিটদের সঙ্গে সমান তালে লড়ে যাচ্ছে দলটি। তারই পথ ধরে এবার আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে হারিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের শীর্ষে ফিরলো বসুন্ধরা। পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয়স্থানে নেমে গেল আবাহনী লিমিটেড।

আগের ম্যাচেই ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছিল দলটি। রোববার নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে ৩-২ গোলে তারা হারিয়েছে আরামবাগকে।

প্রিমিয়ার লিগে রোববার অারেক খেলায় ২-০ গোলে টিম বিজেএমসিকে হারিয়েছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে জয়ী দলের হয়ে গোল দুটি করেন মেহেদী হাসান রয়েল ও মিথুন বিশ্বাস।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/24/1551019572070.jpg

এই জয়ে ৭ ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধার অর্জন ১০ পয়েন্ট। ৮ ম্যাচে টিম বিজেএমসির পয়েন্ট মাত্র ৩।

ম্যাচ হারলেও ২৩তম মিনিটে আরিফুর রহমানের গোলে এগিয়ে যায় আরামবাগ। অবশ্য এক মিনিট না যেতেই জাহিদুল ইসলাম বাবুর আত্মঘাতি গোলে সমতায় ফিরে কিংস। ৩৪তম মিনিটে দেনিয়েল কলিনদ্রেস সোলেরার পাস থেকে বল পেয়ে ফেভারিটদের এগিয়ে দেন মতিন মিয়া। আর ৪২তম মিনিটে মার্কোস দি সিলভার গোলে ব্যবধানটা আরো বাড়িয়ে নেয় বসুন্ধরা।

দ্বিতীয়ার্ধের অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় আরামবাগ। ৫৩তম মিনিটে দলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ম্যাথিউয়ের তৈরি করা উৎসে গোল করেন কিংসলে চিগোজি। তবে ম্যাচে অবশ্য সমতা ফেরানো হয়নি।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে এ অবস্থায় বসুন্ধরা ৭ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট শীর্ষে ফিরলো। আট ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে এরপরই আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনী। ৮ ম্যাচে আরামবাগের পয়েন্ট ১২।

আপনার মতামত লিখুন :

নতুন কোচ খুঁজছে ভারত

নতুন কোচ খুঁজছে ভারত
রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কটা আর রাখতে চাইছে না বিসিসিআই

কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করছে না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তাই নতুন কোচের খোঁজে নেমেছে তারা। প্রধান কোচের পদে আবেদন চেয়ে ইতোমধ্যে বিজ্ঞপ্তিও দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

শুধু প্রধান কোচ নন। ব্যাটিং কোচ, বোলিং কোচ, ফিল্ডিং কোচ, ফিজিওথেরাপিস্ট, স্ট্রেংথ ও কন্ডিশনিং কোচ এবং প্রশাসনিক ম্যানেজার চেয়েও দরখাস্ত আহ্বান করেছে ভারতীয় ক্রিকেটের এ সর্বোচ্চ সংস্থা।

নিয়োগ প্রক্রিয়া নতুন করে হলেও ভারতীয় দলের (সিনিয়র ছেলে) বর্তমান কোচিং স্টাফদের সামনে পুনরায় নিয়োগ পাওয়ার সুযোগ থাকছে। এমনটা জানিয়ে বিসিসিআই জানিয়েছে, ‘ভারতের বর্তমান কোচিং স্টাফ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরাসরি জায়গা করে নেবে।’ ৩০ জুলাই আবেদন করার শেষ দিন।

ভারতের বিশ্বকাপ মিশন শেষে অবশ্য বর্তমান কোচিং স্টাফদের মেয়াদ ৪৫ দিন বাড়িয়েছে বিসিসিআই। ৩ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর কাভার করতেই কোচ রবি শাস্ত্রী, বোলিং কোচ ভারত অরুন, ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার ও ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধরকে এই বাড়তি সুযোগ দিয়েছে বোর্ড।

বর্তমান কোচিং স্টাফের পুনরায় নিয়োগ পাওয়ার সুযোগ থাকলেও ভারতীয় ক্রিকেট দল পাচ্ছে নতুন ট্রেনার ও ফিজিও। কারণ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে ভারতের বিদায়ের পরই তারা চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন।

এক মাসের সফরে তিনটি করে টি-টুয়েন্টি ও ওয়ানডে ম্যাচের পর দুটি টেস্ট খেলবে ভারত। ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলবে তারা হোম সিরিজ।

শচীনের বিশ্বকাপ একাদশেও সাকিব

শচীনের বিশ্বকাপ একাদশেও সাকিব
এক ফ্রেমে শচীন টেন্ডুলকারের সঙ্গে সাকিব -ফাইল ছবি

পারফরম্যান্সই এগিয়ে দিয়েছে সাকিব আল হাসানকে। তাকে অবজ্ঞা করার কোন সুযোগই নেই। সদ্য শেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ৮ ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি আর পাঁচ হাফ-সেঞ্চুরিতে করেছেন ৬০৬ রান। ৩টিতে ম্যাচসেরার সঙ্গে টুর্নামেন্টে সর্বাধিক গড় ৮৬.৫৭। সঙ্গে নিয়েছেন ১১ উইকেট। এই সাফল্যের পর আইসিসি থেকে শুরু করে প্রতিটি সেরা একাদশেই জায়গা পেয়েছেন সাকিব। এবার ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের বিশ্বকাপ একাদশেও আছেন এই টাইগার অলরাউন্ডার। তাকে ছাড়া বিশ্বকাপ একাদশ সাজাবেন কি করে শচীন?

আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯-এর সেরা একাদশে শচীন অধিনায়ক করেছেন কেন উইলিয়ামসনকে। অবশ্য বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসিও তাদের একাদশের নেতৃত্বে রাখেন নিউজিল্যান্ডের দলনেতাকে।

আইসিসির দলে না থাকলেও শচীনের একাদশে আছেন বিরাট কোহলি। তবে নেই মহেন্দ্র সিং ধোনি। সব মিলিয়ে ৫ ভারতীয়কে দলে রেখেছেন ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই খেলোয়াড়।

রেকর্ড পাঁচটি সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মা শচীনের একাদশের অটোমেটিক চয়েজ। এবারের বিশ্বকাপে সর্বাধিক রান করেছেন তিনি। তাকে তো রাখতেই হবে। ওপেনিংয়ে তার সঙ্গে আছেন ইংল্যান্ডের জনি বেয়ারস্টো। তবে জায়গা পেলেন না বিশ্বজয়ী দলের সদস্য- জেসন রয়। তিনি অবশ্য ছিলেন আইসিসির বিশ্বকাপ একাদশে।

তার বুদ্ধিমত্তা আর পারফরম্যান্সে কিউইরা পেয়েছে ফাইনালের টিকিট। কেন উইলিয়ামসন হয়েছেন টুর্নামেন্টের সেরা ক্রিকেটার। শান্ত-ধীর এই ক্রিকেটারটিকেই নেতা করেছেন শচীন। তবে তেমন একটা ভাল খেলতে না পারলেও বিরাট কোহলিকে দলে রেখেছেন শচীন! আইসিসির দলে অবশ্য ছিলেন না ভারত অধিনায়ক।

দলে আছেন বিশ্বকাপ ফাইনালে ঝড় তোলা বেন স্টোকস। ইংল্যান্ডের জয়ের কাণ্ডারি তিনিই। এ কারণেই আইসিসির পর শচীনও তার একাদশে রাখলেন এই অলরাউন্ডারকে। দলে আছেন হার্দিক পান্ডিয়াও। বিশ্বকাপে ব্যাট-বলে দাপট দেখালেও আইসিসির দলে অবশ্য ছিলেন না তিনি।

শচীন তার দলে বিস্ময়করভাবে রেখেছেন রবীন্দ্র জাদেজাকে। যার পারফরম্যান্স একেবারে সাদামাটা। তবে সেমি-ফাইনালে ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং তিনটিতেই ভাল করেছিলেন। ধোনির সঙ্গে মিলে দলকে জয়ের পথেই নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সফল হননি।

পেস বোলার হিসেবে দলে আছেন মিচেল স্টার্ক। যিনি বিশ্বকাপ ২০১৯ বিশ্বকাপে নিয়েছেন ২৭ উইকেট। গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। গ্লেন ম্যাকগ্রার (২৬) রেকর্ড পেছনে ফেলে এক বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি উইকেট এই অস্ট্রেলিয়ান বোলারেরই। শচীনের দলে আছেন জাসপ্রিত বুমরাহ। ৯ ম্যাচে ১৮টি উইকেট নিয়ে আলোচনাতেই ছিলেন তিনি।

দলে আছেন জোফরা আর্চারও। বিশ্বকাপ জয়ী ইংল্যান্ডের এই তারকা ১১ ম্যাচে নিয়েছেন ২০ উইকেট। ফাইনালে জয়েরও অন্যতম নায়ক এই পেসার। ডেথ ওভার বোলিং ক্যারিশমায় শচীনকেও মুগ্ধ করেছেন তিনি।

শচীন টেন্ডুলকারের বিশ্বকাপ একাদশ-
কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, জনি বেয়ারস্টো, সাকিব আল হাসান, বেন স্টোকস, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, মিচেল স্টার্ক, জোফরা আর্চার ও জাসপ্রিত বুমরাহ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র