Alexa

২৭০-২৮০ রানের খোঁজে ছিলেন মাশরাফি

২৭০-২৮০ রানের খোঁজে ছিলেন মাশরাফি

হতাশ করলেন তামিম-লিটন দাসরা

নেপিয়ারের পর ক্রাইস্টচার্চ। ভেন্যু বদলালেও সেই একই ব্যর্থতার পথ ধরে চলল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সাফল্যের দেখা নেই। প্রথম ওয়াডেতে হারের পরই অজুহাত দাঁড় করান নি মাশরাফি বিন মর্তুজা। তার চোখ ছিল সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে। কিন্তু এখানেও সেই ৮ উইকেটে হার! নিউজিল্যান্ডে জয় সোনার হরিণ হয়েই থাকছে। আরো একটা ম্যাচে হেরে ইতিবাচক কিছুই খুঁজে পাচ্ছেন না বাংলাদেশ অধিনায়ক।

শনিবারও হারের পর অজুহাত খুঁজেন নি মাশরাফি। টাইগার ক্যাপ্টেন বলছিলেন, ‘এটা আমাদের জন্য কঠিন একটা দিন ছিল। ব্যাট করতে নেমে দ্রুত উইকেট হারিয়েছি। মিডল অর্ডারে আমাদের জুটি পাইনি। সেই জুটিগুলো ৬০ রানের হলেও দৃশ্যপট ভিন্ন হতে পারত। তবে মিঠুন আজও ভালো করেছে। আবার ভালো বোলিং করেছে মুস্তাফিজ।’

নিউজিল্যান্ডে সাফল্য নেই বাংলাদেশের। এখন পর্যন্ত দেশটি থেকে জয় নিয়ে ফেরা হয়নি। শনিবার ৮ উইকেটে হারের পরা মাশরাফি বলছিলেন, ‘সত্যি বলতে কী এই ম্যাচ থেকে ইতিবাচক তেমন কিছু নেই আমাদের। জিততে হলে দল হিসেবে খেলতে হবে। দুটো ম্যাচে আমরা ২২০ থেকে ২৩০ রান করছি। লড়াই করতে হলে হলে ২৭০ থেকে ২৮০ রান করতে হবে।’ ২৭০-২৮০ রানের খোঁজে ছিলেন মাশরাফি। কিন্তু ক্যাপ্টেনের লক্ষ্যটা পূরণ হলো না।

দলের ব্যাটসম্যানরা কিছুতেই পথ খুঁজে পাচ্ছেন না। বিশেষ করে অভিজ্ঞদের ব্যাট কথা বলছে না। দুই ম্যাচেই হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন মোহাম্মদ মিঠুন। কিন্তু অন্যরা ব্যর্থ। এ অবস্থায় তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম কিংবা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ কারোর ব্যাটেই রান নেই। সফরের বাকীটা সময় পথ দেখাতে হবে সিনিয়রদেরই। না হলেফের ব্যর্থতা সঙ্গী করেই ফিরতে হবে টাইগারদের।

ওয়ানডে সিরিজে এবার হোয়াইট ওয়াশ এড়ানোর লড়াই। ২০ ফেব্রুয়ারি ডানেডিনে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে মাঠে নামবে মাশরাফির দল। যেখানে হেরে গেলে হোয়াইট ওয়াশের লজ্জা পাবে দল। সেই ম্যাচে অন্তত সান্ত্বনার জয় পেতে ব্যাটসম্যানদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে!

আপনার মতামত লিখুন :