Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

জিতেও অপেক্ষায় রাজশাহী, সিলেটের বিদায়

জিতেও অপেক্ষায় রাজশাহী, সিলেটের বিদায়
লড়াইয়ে টিকে থাকল রাজশাহী কিংস
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
চট্টগ্রাম থেকে


  • Font increase
  • Font Decrease

টার্গেট ১৯০ রান। মোটেও ছোট খাটো কোন লক্ষ্য নয়। সিলেট সিক্সার্সের দেয়া সেই লক্ষ্য দক্ষতার সঙ্গেই টপকে গেলো রাজশাহী কিংস। ম্যাচ জিতলো ৫ উইকেটে। তখনো ম্যাচের দুই ওভার খেলা বাকি। বড় এই জয়ের সঙ্গে টুর্নামেন্টের শেষ চারের লড়াই, অর্থাৎ প্লে’অফে খেলার ক্ষীণ একটা সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখলো রাজশাহী।

ক্ষীণ এই কারণে যে ঢাকা তাদের পরের দুই ম্যাচের একটাতে জিতলেই রাজশাহী এই টুর্নামেন্টে দর্শক হয়ে যাবে। সামনের সময়ে রাজশাহীর কাজ এখন একটাই-ঢাকা যেন তাদের শেষ দুই ম্যাচে হারে সেই কামনায় প্রার্থনায় বসা!

১২ ম্যাচে রাজশাহীর পয়েন্ট এখন ঠিক ১২। আর ১০ ম্যাচে ঢাকার পয়েন্ট ১০। টুর্নামেন্টে সিলেটের আরেকটি ম্যাচ বাকি থাকলেও রাজশাহীর কাছে হারেই তাদের সব সম্ভাবনা শেষ। ১১ ম্যাচে সিলেটের পয়েন্ট ৮। একটু জানিয়ে রাখি সমান ১৪ করে পয়েন্ট টুর্নামেন্টে শেষ চারে পৌছে গেছে রংপুর রাইডার্স, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও চিটাগং ভাইকিংস।
চতুর্থ দল কোনটি? সেই সম্ভাবনায় ঢাকা কিছুটা সুবিধায়। কারণ নিজেদের শেষ দুটি ম্যাচ থেকে ঢাকা নিদেনপক্ষে একটা জয় তুলতে পারবে না-এমন ভাবনা অনেক জটিল!

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে টসে জিতে সিলেট সিক্সার্স ব্যাটিং বেছে নেয়। সাব্বির রহমানের ৩৯ বলে ৪৫ এবং নিকোলাস পুরানো ৩১ বলে অপরাজিত ৭৬ রানের কল্যানে সিলেট ১৮৯ রানের বিশাল স্কোর দাড় করায়।

তবে ম্যাচ জিততে হলে শুধু বড় স্কোর গড়লোই চলে না। সেটা রক্ষা করার জন্য ভালো বোলিংও করতে হয়। সেই কাজটাই এই ম্যাচে সিলেট করতে পারলো না।

রাজশাহীর জয়ে ব্যাট হাতে মুল ভুমিকা রাখেন দলের দুই বিদেশি; লরি ইভান্স ও রায়ান টেন ডেসকাট। চতুর্থ উইকেটে তাদের ৪৫ বলে ১০৯ রানের জুটিই রাজশাহীকে জয়ের একেবারে বন্দরে পৌছে দেয়। টুর্নামেন্টের প্রথম সেঞ্চুরিয়ান ইভান্স করেন ৩৬ বলে ৭৬ রান। আর রায়ান ডেসকাট ১৮ বলে ৪২ রান হাঁকিয়ে সিলেটের বোলিংকে ছিন্নভিন্ন করে দেন।

শেষের দিকে এই দুই ব্যাটসম্যান সোহেল তানভীরের একই ওভারে আউট হলেও জয়ের বাকি আনুষ্ঠানিকতা সারেন সৌম্য সরকার ও ক্রিশ্চিয়ান জংকার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: সিলেট সিক্সার্স: ১৮৯/৫ (২০ ওভারে, আফিফ ২৯, সাব্বির ৪৫, পুরান ৭৬*, অলক ১০*, কামরুল ইসলাম ২/৩০, মুস্তাফিজুর ১/৩১)। রাজশাহী কিংস: ১৯০/৫ (১৮ ওভারে, চার্লস ৩৯, ইভান্স ৭৬, ডেসকাট ৪২, জংকার ৮*, সৌম্য ২*, সোহেল তানভীর ২/২৭)। ফল: রাজশাহী কিংস ৫ উইকেটে জয়ী। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ: লরি ইভান্স।

আপনার মতামত লিখুন :

দ্বিতীয় ম্যাচেই আটকে গেল রিয়াল

দ্বিতীয় ম্যাচেই আটকে গেল রিয়াল
এই আনন্দ নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদ

জয়ের ছন্দটা ধরে রাখা হয়নি। আগের ম্যাচেই সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে জয়ে উড়ন্ত সূচনা হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদের। কিন্তু স্প্যানিশ লা লিগায় নিজের দ্বিতীয় ম্যাচেই মুদ্রার অন্য পিঠটাও দেখল ফেভারিটরা। সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতেই রিয়ালকে আটকে দিয়েছে রিয়াল ভাইয়োলিদ।

নিজেদের মাঠে নতুন মৌসুমের প্রথম ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র করেছে জিনেদিন জিদানের দল। করিম বেনজেমা এগিয়ে দিয়েছিলেন দলকে। কিন্তু প্রতিপক্ষের সার্গি গুয়ার্দিওলার গোলে সর্বনাশ!

তবে ম্যাচের পুরোটা জুড়েই দুর্দান্ত ফুটবল খেলেছে রিয়াল। এমন কী ভাগ্য সঙ্গে থাকলে গ্যারেথ বেলের গোলে ১২তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো তারা। কিন্তু নিশানা খুঁজে নেয়নি তার দুর্দান্ত গতির শট থেকে উড়ে যাওয়া বল।

একইভাবে ১৭তম মিনিটে হতাশ করেন করিম বেনজেমা। ৬৯তম মিনিটে ইসকোর জায়গায় মাঠে নামা লুকা ইয়োভিচের হেড ফিরে ক্রসবারে লেগে ফিরে আসলে ফের হতাশ হয় স্বাগতিকরা। এরইমধ্যে ৮২ মিনিটে গোল পেয়ে যায় রিয়াল।

বেনজেমা তুলে নেন তার লা লিগায় দেড়শতম গোলটি। আনন্দে ভাসে রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকরা। কিন্তু ৮৮তম মিনিটে গুয়ার্দিওলা গোলে ম্লান সেই উল্লাস। ১-১ সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়ে দুই দল।

অবৈধ বিজ্ঞাপনে ছবি, তাসকিন বললেন প্রতারণা!

অবৈধ বিজ্ঞাপনে ছবি, তাসকিন বললেন প্রতারণা!
ইবনে সিনা লাইফ কেয়ারের সেই অবৈধ বিজ্ঞাপনের ছবি -বার্তা২৪

ইবনে সিনা লাইফ কেয়ার?

টেলিফোনের ওপার থেকে বিস্ময় মাখা সুরে তাসকিনের পাল্টা প্রশ্ন-এরা কারা?

জানানো হলো-রাজশাহীতে এই নামের একটি প্রতিষ্ঠান তাসকিনের ছবি ব্যবহার করেছে হারবাল ব্যবসার বিজ্ঞাপনে। চটকদার ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে পুরো বিজ্ঞাপনে। আর সেই বিজ্ঞাপনে তাসকিনের হাস্যোজ্জ্বল একটা ছবি আছে এক কোনায়। অর্থাৎ তাসকিনকে রীতিমতো এই হারবাল বিজ্ঞাপনের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে দেখানো হয়েছে।

শনিবার (২৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-এর কাছ থেকে এই তথ্য জানতে পেরে তাসকিন অবাক। বললেন, ‘আমি তো এমন কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কখনো কথাই বলিনি। কাউকে চিনিও না। চুক্তি টুক্তি করার তো প্রশ্নই আসে না। এটা স্রেফ আমার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। নাম ও ছবি ব্যবহার করে আমার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। আমি প্রয়োজন হলে আইনের আশ্রয়ে নেব।’

বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-এর রাজশাহীর স্টাফ করেসপন্ডেন্ট হাসান আদিব সর্বপ্রথম এই বিষয়টি নজরে আনেন। তিনি জানান-জাতীয় দলের ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদের ছবি ব্যবহার করে রাজশাহী জুড়ে চলছে হারবাল ব্যবসা। ইবনে সিনা লাইফ কেয়ার মেডিকো নামের একটি প্রতিষ্ঠান তাদের বিজ্ঞাপনে তাসকিনের এই ছবি ব্যবহার করেছে।

প্রতিষ্ঠানটির সাইনবোর্ডের এক পাশে বড় করে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে তাসকিনের ছবি আছে। তাতে লেখা, স্থায়ী সুন্দর স্বাস্থ্যবান হউন- বডি প্লাস সেবনে। কোর্স- ৯৯০ টাকা। ৭ দিনে যৌন রোগের স্থায়ী সমাধান সেবন করুন-ফুর্তি প্লাস। কোর্স ১২৯০ টাকা। পাইলস? বিনা অপারেশনে অশ্ব গেজ চিকিৎসা ১০০% নিশ্চিত ফলাফল।

রাজশাহী নগরীর চৌদ্দপাই, ডাশমারী, বিনোদপুর, বর্ণালীর মোড়, মনিচত্ত¡র, সাধুর মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় চোখে পড়ছে এমন বিজ্ঞাপন। যা নিয়ে মানুষের মধ্যে কৌতুহল এবং হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে। তবে কেউ কেউ বলছেন, তাসকিনের অনুমতি ছাড়াই এই প্রতিষ্ঠান হয়তো বিজ্ঞাপনে তার ছবি ব্যবহার করেছে। যা অনুচিত।

যোগাযোগ করা হলে ইবনে সিনা লাইফ কেয়ার মেডিকো’র পক্ষ থেকে ডা. হৃদয় ইসলাম বলেন, ‘ক্রিকেটার তাসকিনের সঙ্গে কথা বলে আমরা এই ছবি ছেপেছি। তিনি এ বিষয়ে অবগত। আমরা তার সঙ্গে মৌখিক চুক্তি করেছি। তার অনুমতি নিয়েছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘এই ধরনের পোস্টার দেড়শ করার কথা ছিল। কিন্তু আমরা হাজারের মতো পোস্টার ঝুলিয়েছি।’

তাসকিন এমন কোনো বিজ্ঞাপনে অনুমতি দেওয়ার বিষয় পুরোপুরি অস্বীকার করে বলেন, ‘এই প্রতিষ্ঠানকে কী করে ধরা যায়, তার একটা উপায় বলেন প্লিজ!’

বিসিবির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘ক্রিকেটাররা তাদের ভালো মন্দ বোঝে। কে কোন বিজ্ঞাপন করবে সেটা তো বিসিবি চূড়ান্ত করে দিতে পারে না। তবে তাসকিন যদি মনে করে তার সঙ্গে কেউ বিজ্ঞাপন নিয়ে প্রতারণা করেছে তাহলে বিসিবি তাকে পরামর্শ দেবে, মামলা করতে। পুলিশের কাছে অভিযোগ করতে।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র