Barta24

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

শ্রমিকের দাবি বাস্তবায়নে জাবি'তে মিছিল

শ্রমিকের দাবি বাস্তবায়নে জাবি'তে মিছিল
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রমিকদের আন্দোলনের সমর্থনে মিছিল, ছবি: বার্তা২৪
জাবি করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি বাস্তবায়ন ও সাভারে শ্রমিকদের উপর পুলিশের হামলা ও হত্যার প্রতিবাদে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মিছিল করছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ থেকে শুরু হয়ে অমর একুশে, শহীদ মিনার, বিভিন্ন অনুষদ ও প্রধান সড়কসমূহ প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুরাদ চত্বরে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে মিছিলটি শেষ হয়।

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সভায় জাবি ছাত্র ফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক শোভন রহমান বলেন, 'শ্রমিকের মাসিক ন্যূনতম বেতন মাত্র আট হাজার টাকা। এই টাকা শ্রমিকদের জন্য তামাশা ছাড়া আর কিছুই নয়। কিন্তু আমরা দেখছি এই ন্যূনতম বেতন না দিয়ে বরং তাদের উপর গুলি চালিয়ে স্তব্ধ করে দিতে চাচ্ছে।'

জাবি ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ দিদার তিনি বলেন, 'উন্নয়নের জোয়ারে দেশ ভাসছে কিন্তু শ্রমিকের উন্নয়ন কোথায়? আমরা এমন উন্নয়ন চাই যে উন্নয়নে শ্রমিক সাধারণরা অন্তত দুবেলা পেট ভরে খেতে পারবে। আজ শ্রমিকদের ন্যায্য দাবির বাস্তবায়ন চাইতে রাস্তায় নামতে হচ্ছে, গুলি খেতে হচ্ছে। আমরা দাবি জানাই যেসব শ্রমিকরা সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করে মাত্র আট হাজার টাকা বেতন নির্ধারণ করা হয়েছে সেটা যেন অতিশীঘ্রই বাস্তবায়ন করা হয়।'

জাবি ছাত্র ইউনিয়নের সহ-সভাপতি অলিউর রহমান সান বলেন, 'যে রাষ্ট্র শ্রমিকের লাশের উপর দিয়ে উন্নয়নের মহাসড়কে প্রবেশ করছে আমরা তেমন রাষ্ট্র চাই না। আমলাদের বেতন বাড়ানো হচ্ছে অথচ যাদের শরীরের ঘাম দিয়ে দেশের ভিত গঠন হয় তাদেরে হত্যা করা হচ্ছে। আমরা শ্রমিকদের দাবির সাথে সংহতি প্রকাশ করছি। যে শ্রমিককে নির্বিচারে হত্যা করা হলো আমরা তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ সেই সাথে অপরাধীদের শাস্তি আওতায় আনার জোর দাবি জানাচ্ছি।'

মিছিলে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের অর্ধশত শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

আপনার মতামত লিখুন :

জবি ছাত্রলীগের সম্মেলন ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি

জবি ছাত্রলীগের সম্মেলন ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: বার্তা২৪.কম

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রলীগের দ্বিতীয় সম্মেলনকে কেন্দ্র করে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। আর একে সফল করতে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটি।

জানা গেছে, অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জেরে গত পাঁচ মাস আগে জবি শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত করে কেন্দ্রীয় কমিটি। কেন্দ্রীয় কমিটি সৎ, যোগ্য ও দায়িত্বশীল নেতা নির্বাচনে আগামী ২০ জুলাই সম্মেলনের দিন নির্ধারণ করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সাবেক সহ-সভাপতি আশরাফুল ইসলাম টিটনকে আহ্বায়ক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটি করে দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

এদিকে, সম্মেলনকে ঘিরে পদপ্রত্যাশীরা লবিং-তদবির, শোডাউন শুরু করে দিয়েছেন। প্রতিদিনই ক্যাম্পাসে নিজের শক্তির জানান দিতে মহড়া দিচ্ছেন অনেকে। অনেকে নিয়মিত ডাকসু ভবন, মধুর ক্যানটিন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অফিসে আড্ডা দিচ্ছেন। কেউ কেউ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা, আওয়ামী লীগ নেতা ও মন্ত্রিপরিষদ নেতাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/16/1563292497156.jpg

পদপ্রত্যাশীদের মধ্যে আলোচিতরা হলেন- সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আশরাফুল ইসলাম টিটন, সাবেক সহ-সম্পাদক মোল্লা আনোয়ার হোসেন সজিব, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাওসার আহমেদ, তারেক আজিজ, সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম ফরায়েজি, আসাদুল্লাহ আসাদ, আসাদুজ্জামান আসাদ, নুরুল আফসার, সাবেক উপ-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ পারভেজ, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য আদম সাইফুল্লাহ ও আনিসুর রহমান।

সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক আশরাফুল ইসলাম টিটন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, সম্মেলন সফল করতে বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন জায়গায় ব্যানার-ফেস্টুন লাগানোর কাজ চলছে। এবার সম্মেলনের দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সাবেক শিক্ষার্থীরা উপস্থিত থাকবেন। ইতোমধ্যে আমন্ত্রিত অতিথিদের কাছে চিঠি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তবে বৃষ্টিতে যেন সম্মেলন পণ্ড না হয় সে ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

‘স্মার্ট ইউনিভার্সিটিতে রূপান্তর হবে খুবি’

‘স্মার্ট ইউনিভার্সিটিতে রূপান্তর হবে খুবি’
খুবির সিএসই বিভাগে স্মার্ট ক্লাসরুম উদ্বোধন করছেন উপাচার্য অধ্যাপক ফায়েক উজ্জামান/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগে মোবাইল অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট ল্যাব, স্মার্ট ক্লাসরুম ও নতুন ওয়েব সাইট উদ্বোধন করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, বিশ্বের অগ্রগতির সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে প্রযুক্তি শিক্ষা ও গবেষণার বিকল্প নেই। প্রযুক্তি এখন দ্রুত পরিবর্তিত ও আধুনিক হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘সর্বশেষ উদ্ভাবনসহ প্রতিনিয়ত যে বিকাশ হচ্ছে সেই জ্ঞান কাজে লাগিয়ে আরও নতুনতর উদ্ভাবনে এগিয়ে আসতে হবে। ডিজিটাল নেটওয়ার্কের আওতায় আনা, লাইব্রেরি অটোমেশন করা- এসব করা গেলে স্মার্ট ইউনিভার্সিটিতে রূপান্তর হবে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়।’

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) বেলা ৪টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. সত্যেন্দ্র নাথ বসু একাডেমিক ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান এসবের উদ্বোধন করেন। পরে বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মোঃ আনিসুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সাধন রঞ্জন ঘোষ, ডিন অধ্যাপক ড. উত্তম কুমার মজুমদার, ঐ বিভাগের শিক্ষক আয়েশা আক্তার সহ বিভাগের অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। উল্লেখ্য, তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয়ের আর্থিক সহায়তায় ল্যাব ও স্মার্ট ক্লাসরুম তৈরি করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র