Alexa

দুবাই কোরআন পার্ক: কোরআনে বর্ণিত দুর্লভ উদ্ভিদের অপূর্ব চিত্রায়ন

দুবাই কোরআন পার্ক: কোরআনে বর্ণিত দুর্লভ উদ্ভিদের অপূর্ব চিত্রায়ন

দুবাই কোরআন পার্কের প্রবেশ পথ, ছবি: সংগৃহীত

কোরআনে কারিমের নানা বিস্ময়কর মহিমা নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ‘হলি কোরআন পার্ক।’ দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর এ পার্ক দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে।

এ পার্ক প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য হলো- বিভিন্ন সংস্কৃতি ও ধর্ম-বর্ণের মানুষের সঙ্গে বিজ্ঞান এবং সংস্কৃতির সেতুবন্ধ। কোরআনে কারিমে বর্ণিত বিভিন্ন সৃষ্টি, উদ্ভিদ ও ঘটনার সঙ্গে মিল রেখেই তৈরি করা হয়েছে এ কোরআনিক গার্ডেন। কোরআনে কারিমে বর্ণিত কোনো ঘটনা বর্ণনার চিত্রায়ন ও সাজসজ্জা বাদ যায়নি এ পার্কে।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) দুবাইয়ের আল খাওয়ানিজ এলাকায় ৬০ হেক্টর জমিতে নির্মিত বিরল ও অপূর্ব এ পার্কটি দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। প্রথম দিন পার্কটি দেখতে প্রচুর মানুষ ভিড় জমান।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/02/1554170645376.jpg
সূরা কাহাফে বর্ণিত গুহার আদলে নির্মিত গুহা

ইসলামি প্রেক্ষাপট মাথায় রেখে পবিত্র কোরআনে উল্লেখিত সবধরনের দুর্লভ উদ্ভিদ দিয়ে বিশেষভাবে এ থিম পার্কটি সাজানো হয়েছে। কোরআনে কারিমে উল্লেখিত ৫৪টি গাছের মধ্যে মাত্র কয়েকটি ছাড়া বাকি সব ক’টি গাছই স্থান পেয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রকল্পের দুবাই সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে ডুমুর, ডালিম, জলপাই, পেঁয়াজ, রসুন, যব, গম, আদা, শসা ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। এ ছাড়া বিভিন্ন প্রজাতির গাছ লাগানো হয়েছে পার্কের নির্দিষ্ট বাগানে, যা দ্বারা ভেষজ চিকিৎসা করা যায়।

বাগানের মাঝে রয়েছে হ্রদ, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত টানেল যেখানে পবিত্র কোরআনে উল্লেখিত বিভিন্ন অলৌকিক ও বিস্ময়কর ঘটনা সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়। পরদিকে ইসলামি প্রেক্ষাপটে মনোরম পরিবেশের এ থিম পার্কটিতে রয়েছে দৃষ্টিনন্দন প্রবেশ পথ, ইসলামি বাগান, প্রশাসনিক ভবন, শিশুদের খেলার জায়গা, ওমরা কর্নার, আউটডোর, থিয়েটার, দর্শনার্থীদের জন্য কোরআনে কারিমের মহিমা প্রদর্শনের স্থান ও ফোয়ারা।

এর পাশাপাশি আরও রয়েছে মরূদ্যান, পাম বাগান, লেক, রানিংট্র্যাক, সাইক্লিং ট্র্যাক ও হাঁটার ট্র্যাক।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/02/1554170715102.jpg
পার্কে আসা দর্শনার্থীদের একাংশ

কোরআনে কারিমে উল্লেখিত দুর্লভ গাছসমূহ একই জায়গায় দেখতে পেরে খুবই খুশি পার্কে আসা দর্শনার্থীরা। পাশাপাশি এমন বিরল ও অপূর্ব আয়োজনে পার্ক করায় আরব আমিরাত সরকারকে মোবারকবাদ জানিয়েছেন তারা।

কোরআনে কারিমের বর্ণনা মতে একটি গুহার আবহও তৈরি করা হয়েছে পার্কটিতে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/02/1554170824376.jpg
পার্কের ভেতরের দৃশ্য

পবিত্র কোরআনে বর্ণিত ৫৪ প্রজাতির মধ্যে ৩৫টি পার্কের অভ্যন্তরে প্রদর্শিত হবে। অবশিষ্ট ১৫টি গ্রিন হাউজে প্রদর্শিত হবে এবং আরো ২০টি প্রজাতি পার্কের বাইরে প্রদর্শিত হবে।

প্রকল্পটি নির্মাণে দুবাই মুদ্রায় ২৭ মিলিয়ন অর্থ ব্যয় করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :