Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

ভারতে সরকারি অফিসে ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ নিষেধ

ভারতে সরকারি অফিসে ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ নিষেধ
ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কেন্দ্রীয় সরকারি অফিসে বসে সরকারি কম্পিউটার বা মোবাইল ফোনে ফেসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন না—এমন নির্দেশনা দিয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সরকারি অফিসের গোপন তথ্যের নিরাপত্তার কথা ভেবেই কেন্দ্রীয় সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো এক নির্দেশিকায়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাইবার সিকিউরিটি ডিভিশনের পাঠানো ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, কোনও ব্যক্তি যদি অফিসের কম্পিউটার ব্যবহার করে সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে সংযুক্ত থাকতে চান তা হলে তাকে নিজের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের থেকে আগাম অনুমতি নিতে হবে।

কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা অফিসের বাইরে নিজেদের পেন ড্রাইভ, হার্ড ডিস্ক নিয়ে যেতে পারবেন না৷ কেউ কোন সরকারি তথ্য বা নথি গুগল ড্রাইভ, ড্রপ বক্স, আই ক্লাউড-এ সংরক্ষণ করতে পারবেন না।

অফিসের দেওয়া ই-মেইল আইডির বাইরে অন্য কোন ই-মেইল সরকারি কাজের জন্য ব্যবহার করা যাবে না বলেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

মোদীকে 'অর্ডার অফ জায়েদ' সম্মাননায় ভূষিত

মোদীকে 'অর্ডার অফ জায়েদ' সম্মাননায় ভূষিত
ছবি: সংগৃহীত

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা 'অর্ডার অব জায়েদ'-এ ভূষিত করা হয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে।

শনিবার (২৪ আগস্ট) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবু ধাবির এক অনুষ্ঠানে মোদীর গলায় সোনার মেডালটি পরিয়ে দেন যুবরাজ শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে মোদীকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম প্রেসিডেন্ট শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের নামে এ সম্মাননার নামকরণ করা হয়েছে। তার জন্মের শতবর্ষ উপলক্ষে মোদীকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়। এ বছর এপ্রিলে মোদীকে এ সম্মাননায় ভূষিত করার কথা ঘোষণা করা হয়।

সৌদি আরব সরকার কর্তৃক এ সম্মাননা বিশ্বের খুব কম নেতাকে দেওয়া হয়েছে। এর আগে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও চীনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট শিং জিংপিয়ের মতো নেতাদেরকে এ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়েছে।

কাশ্মীরের বিতর্কিত ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ করার ঘোষণা দেওয়ার পরও সৌদি সরকার তাকে এই সম্মাননা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সম্প্রতি ভারত সরকার ৩৭০ ধারা বাতিলের পরও কাশ্মীরের নিরাপত্তার স্বার্থে এই মুহূর্তে সেখানে প্রবেশাধিকারের নিষেধাজ্ঞা জারি রেখেছে। 

কাশ্মীর থেকে ফেরত পাঠালো রাহুল গান্ধীকে

কাশ্মীর থেকে ফেরত পাঠালো রাহুল গান্ধীকে
সাবেক কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, ছবি: সংগৃহীত

ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও আজ শনিবার (২৪ আগস্ট) কাশ্মীর যান সাবেক কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও বিরোধী দলের ১১ নেতা। কিন্তু শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে তাদেরকে দিল্লিতে ফেরত পাঠানো হয়েছে। 

শনিবার (২৪ আগস্ট) ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। 

আরও পড়ুন: নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও কাশ্মীর যাচ্ছেন রাহুল গান্ধী

৩৭০ ধারা বাতিলের পরও কাশ্মীরের নিরাপত্তার স্বার্থে এই মুহূর্তে সেখানে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে প্রশাসন। 

এদিকে বিরোধী নেতাদের কাশ্মীর সফরের সিদ্ধান্তের খবরে আপত্তি জানায় জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন। জম্মু-কাশ্মীরের তথ্য ও জনসংযোগ দফতরের বরাতে  এক টুইট বার্তায় বলা হয়েছে, সীমান্তে সন্ত্রাস ও জঙ্গিদের হাত থেকে যখন জম্মু-কাশ্মীরবাসীকে রক্ষা করার চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার, সেই পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক নেতাদের এসে বিড়ম্বনা না বাড়ানো উচিত। রাজনৈতিক নেতাদের কাছে আর্জি, দয়া করে সহযোগিতা করুন। শ্রীনগরে আসবেন না। আপনাদের বোঝা উচিত, এই মুহূর্তে প্রধান দায়িত্ব হল শান্তি বজায় রাখা।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র