Barta24

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

উত্তরপ্রদেশে রাহুল-সোনিয়া ছাড়া কংগ্রেসের সবাই পিছিয়ে

উত্তরপ্রদেশে রাহুল-সোনিয়া ছাড়া কংগ্রেসের সবাই পিছিয়ে
সোনিয়া ও রাহুল, ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে একটি কথা প্রচলিত রয়েছে, উত্তরপ্রদেশ যার, ভারতের ক্ষমতা তার। কারণ দেশটির এই রাজ্যেই সর্বোচ্চ ৮০টি আসন রয়েছে। এবারও এই রাজ্যে নিরঙ্কুশ জয় পেতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি।

বিপরীতে কংগ্রেসের সোনিয়া গান্ধী ও ছেলে রাহুল গান্ধী ছাড়া দলটির আর কেউই এই রাজ্যে কেউই এগিয়ে নেই। এতে উত্তর প্রদেশের পাশাপাশি গোটা ভারতের ক্ষমতা বিস্তার করতে পারেনি কংগ্রেস।

রাজ্যের আমেথি থেকে রাহুল আর রায় বারেলি থেকে মা সোনিয়া গান্ধী জয়ের অপেক্ষায় রয়েছেন। উত্তরপ্রদেশে ৮০ আসনের মধ্যে বিজেপি ৫৬ কংগ্রেস ২ জোটের শরিক ও স্বাধীন দলগুলো পেয়েছে ২২টি আসন।

তবে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোটের পক্ষ থেকে আরও কয়েকটি আসন পেতে পারে বলে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো নিশ্চিত করেছে।

যদিও ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজেপি এই রাজ্যে ৭৩টি আসন পেয়েছে। এবার ১৭টি আসন কমলেও এই রাজ্যে দাপট কমবে না বিজেপির।

লোকসভা নির্বাচনের ৫৪২ আসনের মধ্যে ৩২১ আসনে জয় লাভ করতে যাচ্ছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ। বিপরীতে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ ১১১ আসন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাধীন দলগুলো পেয়েছে ১০৯ আসন পেয়েছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে ভোট গণনা।

আপনার মতামত লিখুন :

কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ড: পাকিস্তানকে রায় পুনর্বিবেচনার নির্দেশ

কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ড: পাকিস্তানকে রায় পুনর্বিবেচনার নির্দেশ
ভারতের সাবেক নৌসেনা কুলভূষণ যাদব

গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে ভারতের সাবেক নৌসেনা কুলভূষণ যাদবকে পাকিস্তানের সামরিক আদালতে দেওয়া মৃত্যুদণ্ডের রায় পুনর্বিবেচনা করতে বলেছে আন্তর্জাতিক আদালত।

বুধবার (১৭ জুলাই) হেগের এই আদালতের ১৬ বিচারকের প্যানেল সংখ্যাগরিষ্ঠ বিচারকের মতামতের ভিত্তিতে এ রায় ঘোষণা করে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

আন্তর্জাতিক আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, রায় পুনর্বিবেচনা না করা পর্যন্ত কুলভূষণ যাদবের মৃত্যুদণ্ড স্থগিত থাকবে। পাশাপাশি তার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ দিতে হবে ভারতীয় কূটনীতিকদের।

ভারতের অভিযোগের সঙ্গে একমত হয়ে আন্তর্জাতিক আদালত জানায়, সামরিক আদালতে সাজাপ্রাপ্ত নৌসেনাকে কনস্যুলার অ্যাক্সেস না দিয়ে ভিয়েনা চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান।

রায়ে আরও বলা হয়, কুলভূষণ যাদবের সঙ্গে যোগাযোগ করা, আটক আবস্থায় তার সঙ্গে দেখা করা এবং তার জন্য আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার অধিকার থেকে ভারতকে বঞ্চিত করেছে পাকিস্তান।

মোট ১৬ জনের রায়ের মধ্যে ৫ জনের রায়ই ভারতের পক্ষে যায়। মাত্র একজন বিচারপতি ছিলেন পাকিস্তানের। এমনকি, চীনের বিচারপতিও ভারতের পক্ষেই রায় দেন।

ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা কুলভূষণকে ২০১৬ সালের মার্চ মাসে গ্রেপ্তার করে পাকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী। বেলুচিস্তানে বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহে মদদ দেওয়া এবং ভারতের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে।

ভারতের দাবি, কুলভূষণ তার ব্যবসার কাজে ইরানে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে তাকে অপহরণ করে পাকিস্তানে নিয়ে গিয়ে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো হয়।

পাকিস্তানের সামরিক আদালত ২০১৭ সালের এপ্রিলে কুলভূষণকে মৃত্যুদণ্ড দিলে সেই রায়ের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে যায় ভারত।

সূত্র: এনডিটিভি

মার্কিন আদালতে মেক্সিকান মাদক সম্রাটের যাবজ্জীবন

মার্কিন আদালতে মেক্সিকান মাদক সম্রাটের যাবজ্জীবন
মাদক সম্রাট এল ছাপো গুজম্যান, ছবি: সংগৃহীত

মেক্সিকান মাদক সম্রাট এল ছাপো গুজম্যানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের আদালত। এছাড়া ৩০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডও দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৭ জুলাই) মাদক পাচার, মানি লন্ডারিং সহ ১০ মামলায় আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এই রায় দেন নিউ ইয়র্কের ফেডারেল আদালত।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, মাদক মামলায় যাবজ্জীবন ও বেআইনিভাবে আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহারের দায়ে তাঁকে আরও ৩০ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তার ১২.৬ বিলিয়ন সমপরিমাণ সম্পদ বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করা হয়।

এর আগে ২০১৫ সালের মেক্সিকোর কারাগারে আটককৃত অবস্থায় একটি টানেল দিয়ে সে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে তাঁকে ফের গ্রেফতার করা হয়। এরপর ২০১৭ সালে তাকে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে এল ছাপো যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি মাদক সরবরাহকারী সিনালোয়া কারটেলের প্রধান ছিলেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র