Barta24

শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

English

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০ বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০ বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে
ছবি: সংগৃহীত
সেন্ট্রাল ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জন ও আহত ছয় বাংলাদেশি নাগরিকের পরিচয় মিলেছে। নিহতদের সকলেই প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক।

নিহত দশজন হচ্ছেন, টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলার মালেকা গ্রামের হাবেজ উদ্দিনের ছেলে বাহাদুর, একই উপজেলার কস্তুরিপাড়া গ্রামের মো. শামসুল হকের ছেলে মো. মনির হোসেন, কুষ্টিয়ার ভেড়ামাড়া উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেনের ছেলে রফিকুল ইসলাম, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার আলিপুরের মো. আব্দুল খালেকের ছেলে মো. ইউনুস আলি, নরসিংদীর মনোহরদি উপজেলার তারাকান্দি গ্রামের মান্নান মাঝির ছেলে জামাল উদ্দিন মাঝি, একই উপজেলার তাতারদি গ্রামের রশিদের ছেলে ইমদাদুল ও দমনমারা গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে মো. আল আমিন, নওগাঁর মান্দা উপজেলার তেগড়া গ্রামের মো. তফিজউদ্দিন মৃধার ছেলে গিয়াসউদ্দিন মৃধা, একই উপজেলার মো. রমজান আলীর ছেলে মো. মানিক ও কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার বাহাদিয়া গ্রামের গিয়াসউদ্দিনের ছেলে মো. জুয়েল।

গুরুতর আহতরা হচ্ছেন, টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলার বলদি কোকধরা গ্রামের নায়েব আলীর ছেলে নুরুল ইসলাম, একই উপজেলার  কস্তুরিপাড়া গ্রামের শামসুল হকের ছেলে মো. মনির হোসেন, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার জুনিয়াদহ গ্রামের মো. ফজলুর ছেলে মো. রশিদুল ইসলাম, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার উরপা গ্রামের মো. আব্দুর রশিদের ছেলে মো. ইউসুফ আলী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্চারামপুর  উপজেলার আয়ুবপুর গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে ফুল মিয়া, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দি গ্রামের  মেনু মিয়ার ছেলে রায়হান মিয়া ও রাজিব। রাজিবের ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাসের তথ্য অনুযায়ী একটি মিনিবাসে করে উক্ত ১৭ জন শ্রমিকক তাদের কর্মস্থলে যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মিনিবাসের মোট আরোহীর সংখ্যা ছিল চালকসহ ১৭ জন। এদের মধ্যে ১০ জন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। গুরুতর আহত আরও ২ জনকে চিকিৎসার জন্য রিয়াদে স্থানান্তর করা হয়। আহত অন্য তিনজনকে শাকরা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে আরও দুইজনকে শাকরা হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

বুধবার সৌদি আরবের শাকরা শহর হতে মদিনার পথে ২০ কিলোমিটার দূরে সকাল ৬টা ১৫ মিনিটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় আল হাবিব কোম্পানি ফর ট্রেডিং কমার্সিয়াল কন্ট্রাক্টস লিমিটেডের ১৭ জন শ্রমিক হতাহত হন।

 

আপনার মতামত লিখুন :

মোদীকে 'অর্ডার অফ জায়েদ' সম্মাননায় ভূষিত

মোদীকে 'অর্ডার অফ জায়েদ' সম্মাননায় ভূষিত
ছবি: সংগৃহীত

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা 'অর্ডার অব জায়েদ'-এ ভূষিত করা হয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে।

শনিবার (২৪ আগস্ট) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবু ধাবির এক অনুষ্ঠানে মোদীর গলায় সোনার মেডালটি পরিয়ে দেন যুবরাজ শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে মোদীকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম প্রেসিডেন্ট শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের নামে এ সম্মাননার নামকরণ করা হয়েছে। তার জন্মের শতবর্ষ উপলক্ষে মোদীকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়। এ বছর এপ্রিলে মোদীকে এ সম্মাননায় ভূষিত করার কথা ঘোষণা করা হয়।

সৌদি আরব সরকার কর্তৃক এ সম্মাননা বিশ্বের খুব কম নেতাকে দেওয়া হয়েছে। এর আগে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও চীনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট শিং জিংপিয়ের মতো নেতাদেরকে এ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়েছে।

কাশ্মীরের বিতর্কিত ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ করার ঘোষণা দেওয়ার পরও সৌদি সরকার তাকে এই সম্মাননা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সম্প্রতি ভারত সরকার ৩৭০ ধারা বাতিলের পরও কাশ্মীরের নিরাপত্তার স্বার্থে এই মুহূর্তে সেখানে প্রবেশাধিকারের নিষেধাজ্ঞা জারি রেখেছে। 

কাশ্মীর থেকে ফেরত পাঠালো রাহুল গান্ধীকে

কাশ্মীর থেকে ফেরত পাঠালো রাহুল গান্ধীকে
সাবেক কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, ছবি: সংগৃহীত

ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও আজ শনিবার (২৪ আগস্ট) কাশ্মীর যান সাবেক কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও বিরোধী দলের ১১ নেতা। কিন্তু শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে তাদেরকে দিল্লিতে ফেরত পাঠানো হয়েছে। 

শনিবার (২৪ আগস্ট) ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। 

আরও পড়ুন: নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও কাশ্মীর যাচ্ছেন রাহুল গান্ধী

৩৭০ ধারা বাতিলের পরও কাশ্মীরের নিরাপত্তার স্বার্থে এই মুহূর্তে সেখানে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে প্রশাসন। 

এদিকে বিরোধী নেতাদের কাশ্মীর সফরের সিদ্ধান্তের খবরে আপত্তি জানায় জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন। জম্মু-কাশ্মীরের তথ্য ও জনসংযোগ দফতরের বরাতে  এক টুইট বার্তায় বলা হয়েছে, সীমান্তে সন্ত্রাস ও জঙ্গিদের হাত থেকে যখন জম্মু-কাশ্মীরবাসীকে রক্ষা করার চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার, সেই পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক নেতাদের এসে বিড়ম্বনা না বাড়ানো উচিত। রাজনৈতিক নেতাদের কাছে আর্জি, দয়া করে সহযোগিতা করুন। শ্রীনগরে আসবেন না। আপনাদের বোঝা উচিত, এই মুহূর্তে প্রধান দায়িত্ব হল শান্তি বজায় রাখা।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র