Alexa

মিথ্যা তথ্য দিয়ে জামিন আবেদন, ২ আসামিকে জরিমানা

মিথ্যা তথ্য দিয়ে জামিন আবেদন, ২ আসামিকে জরিমানা

প্রতীকী/ ছবি: সংগৃহীত

হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিয়ে জামিন আবেদন করায় দুই আসামিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চে এই জরিমানার আদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না। আর আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামাল পারভেজ।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে মতিঝিল সিটি সেন্টার থেকে বিপুল পরিমাণ টাকাসহ গ্রেফতার হন আমেনা এন্টারপ্রাইজের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মো. জয়নাল আবেদীন ও তার অফিস সহকারী আলমগীর হোসেন।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, আমেনা এন্টারপ্রাইজ ও ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ এন্ড করপোরেশনে বসে দেশের বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকায় টাকা প্রেরণের পরিকল্পনা করছিলেন তারা। 

গত ৫ মে তাদের জন্য হাইকোর্টে জামিন আবেদন করা হয়। হলফনামায় স্বাক্ষর করেন জয়নাল আবেদীনের স্ত্রী তানিয়া শারমীন। আইনজীবী ছিলেন আঞ্জুমান আরা বেগম। সেই আবেদনটি ৭ মে না-মঞ্জুর হয়।

জামিন না-মঞ্জুরের বিষয়টি বিচারিক আদালতের একই আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে ২২ মে পুনরায় হলফনামা করে আসামিদের জামিন আবেদন করা হয়। এবার হলফনামায় স্বাক্ষর করেন জনৈক মো. জাকির হোসেন মিন্টু। এবার আইনজীবী ছিলেন কামাল পারভেজ। ২৩ মে বৃহস্পতিবার আবেদনের উপর শুনানি হয়।

ডিএজি মানিক জানান, বিচারিক আদালতের একই আদেশে একবার জামিন না-মঞ্জুর হলে একই আদেশে দ্বিতীয়বার হাইকোর্টে জামিন আবেদন করা যায় না। কিন্তু তারা বিষয়টি গোপন করেন। হাইকোর্ট বিষয়টি জানার পর দুই আসামিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন।

তিনি আরও জানান, জরিমানার এক লাখ টাকা ৩০ দিনের মধ্যে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামকে ও এক লাখ টাকা জাতীয় অন্ধ কল্যাণ ট্রাস্টকে জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ টাকা জমা দেওয়ার ১০ দিনের মধ্যে তা আদালতকে অবহিত করারও নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। একই সাথে আসামিদের জামিন আবেদনও সরাসরি না-মঞ্জুর করেন আদালত।

আপনার মতামত লিখুন :

আইন ও আদালত এর আরও খবর