Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

স্বর্ণ মেলা-২০১৯

৫১ কোটি টাকার স্বর্ণ বৈধ করেছেন ব্যবসায়ীরা

৫১ কোটি টাকার স্বর্ণ বৈধ করেছেন ব্যবসায়ীরা
স্বর্ণ মেলায় ব্যবসায়ীরা, ছবি: বার্তা২৪.কম
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

তিন দিনব্যাপী ‘স্বর্ণ মেলা-২০১৯'র প্রথম দুদিনে মোট ৫১ কোটি টাকার সোনা, রূপা ও ডায়মন্ড বৈধ করেছেন ব্যবসায়ীরা। ঢাকা ও চট্টগ্রামের ৩৬৬ জন ব্যবসায়ী ভরি প্রতি এক হাজার টাকা করে কর দিয়ে অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করেছেন। এছাড়া ডায়মন্ডের ভরি প্রতি কর হচ্ছে ৬ হাজার ও রুপার ৫০ টাকা।

বিষটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা। তিনি বার্তা২৪.কম-কে বলেন, 'স্বর্ণ মেলায় কেবল ঢাকাতেই ২৫০ জন স্বর্ণ ব্যবসায়ী ৫০ কোটি টাকার বেশি স্বর্ণ বৈধ করেছেন। এর মধ্যে সোমবার ১৭৮ জন ২৫ কোটি টাকার বেশি দিয়েছেন।'

মেলার প্রথমদিন রোববার (২৩ জুন) বাজুস সভাপ‌তি গঙ্গা চরণ মালাকার, সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালাসহ ৭২ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ২৫ কোটি টাকার স্বর্ণ বৈধ করেছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য (কর ও প্রশাসন) কানন কুমার রায়।

তিনি বার্তা২৪.কম-কে বলেন, 'মেলায় ব্যবসায়ীদের সাড়া পেয়েছি। প্রথমদিন ব্যবসায়ীরা কর দিতে নয়, বুঝতে এসেছেন। অনেকে ফরম নিয়েছেন। আগামী দুদিন প্রত্যাশা অনুসারে মেলায় কর দেবেন ব্যবসায়ীরা।'

আরও পড়ুন: ২৫ কোটি টাকার স্বর্ণ বৈধ করেছেন ব্যবসায়ীরা

এ ছাড়াও বাণিজ্যিক নগরী চট্টগ্রামে ৬৬ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান মোট ৬৫ লাখ ৬৪ হাজার টাকার স্বর্ণ বৈধ করেছেন। এনবিআর ও বাজুসের যৌথভাবে আয়োজিত মেলায় ৪০০ কোটি টাকা কর আহরণ হবে বলে প্রত্যাশা করা হয়েছে।

২৩ জুন শুরু হওয়া এ মেলা চলবে মঙ্গলবার (২৫ জুন) পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মেলা চলবে। দেশের আট বিভাগে এই স্বর্ণ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রোববার সকালে মেলার উদ্বোধন করেন এনবিআরের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। তিনি বলেন, 'তৈ‌রি পোশাক ও চামড়া শি‌ল্পের মতো যারা স্ব‌র্ণের কাঁচামাল রফতা‌নির উদ্দেশে আমদা‌নি কর‌বেন, তা‌দের বন্ড সু‌বিধা‌ দেওয়া হবে।'

এ সময় এন‌বিআর চেয়ারম্যান আরও ব‌লেন, 'যারা বন্ড সু‌বিধা পা‌বেন, তাদের আমদানি করা সব স্বর্ণ রফতা‌নি কর‌তে হ‌বে। বন্ড সু‌বিধায় আনা স্বর্ণ খোলা বাজা‌রে বি‌ক্রি করা যা‌বে না।'

সাধারণ মানুষ বি‌দেশ থে‌কে স‌র্বোচ্চ ১০০ গ্রাম স্বর্ণ আমদা‌নি কর‌তে পার‌বেন। এর চে‌য়ে এক গ্রামও বে‌শি আ‌নলে তা বা‌জেয়াপ্ত করা হ‌বে। ত‌বে ব্যবসায়ীরা বি‌দেশ থে‌কে স্বর্ণালঙ্কার আমদা‌নি কর‌তে পার‌বে না ব‌লে জানান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

আপনার মতামত লিখুন :

সিন্ডিকেটেড লোন অফ দি ইয়ার বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড পেল সিটি ব্যাংক

সিন্ডিকেটেড লোন অফ দি ইয়ার বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড পেল সিটি ব্যাংক
ব্যাংকের পক্ষ থেকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও মাসরুর আরেফিন এ পুরস্কার নেন, ছবি: সংগৃহীত

এশিয়ান ব্যাংকিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সের ‘সিন্ডিকেটেড লোন অফ দি ইয়ার বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড-২০১৯’ পুরস্কার অর্জন করল সিটি ব্যাংক।

সিঙ্গাপুরে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে ব্যাংকের পক্ষ থেকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও মাসরুর আরেফিন এ পুরস্কার গ্রহণ করেন। ব্যাংকো এনার্জি জেনারেশন লিমিটেডের জন্য ৫১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের দীর্ঘমেয়াদি বৈদেশিক মুদ্রা ঋণ সংস্থান করার স্বীকৃতিস্বরূপ সিটি ব্যাংককে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। মুন্সিগঞ্জে অবস্থিত ৫৩.৯৭ মেগাওয়াটের এইচএফও ভিত্তিক পাওয়ার প্ল্যান্টের মালিক ডোরিন গ্রুপ।

এশিয়ান ব্যাংকিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স একটি বিশেষায়িত ম্যাগাজিন, যা এশীয় অঞ্চলের প্রগতিশীল অর্থনীতির গতিপ্রকৃতি নিয়ে আলোচনা করে। ২০১২ সাল থেকে এ ম্যাগাজিনটি অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে এশীয় অঞ্চলের হোলসেল ব্যাংকিং সেক্টরে বাজারের চিত্র তুলে ধরার মাধ্যমে জনপ্রিয়তা লাভ করে এসেছে।

আইসিটি টাওয়ারে ইস্টার্ন ব্যাংকের বুথ

আইসিটি টাওয়ারে ইস্টার্ন ব্যাংকের বুথ
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে এটিএম বুথ চালু করেছে ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড (ইবিএল)। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) আনুষ্ঠানিকভাবে এই এটিএম বুথের উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব, ইস্টার্ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী রেজা ইফতেখার, হেড অব কমিউনিকেশন অ্যান্ড এক্সটার্নাল অ্যাপেয়ারস জিয়াউল করিমসহ ইস্টার্ন ব্যাংক ও আইসিটি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র