Barta24

শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬

English

নেত্রকোনায় লরিচাপায় নিহত ১

নেত্রকোনায় লরিচাপায় নিহত ১
প্রতীকী ছবি
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
নেত্রকোনা


  • Font increase
  • Font Decrease

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় লরিচাপায় মো. রমজান (২৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। শুত্রুবার (১৪ জুন) সন্ধ্যায় দুর্গাপুর পৌর শহরের দক্ষিণ পাড়া মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রমজান নেত্রকোনা জেলা শহরের সাতপাই এলাকার মৃত চান মিয়ার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যায় বিরিশিরি থেকে বেপরোয়া গতির একটি লরি দুর্গাপুরে যাচ্ছিল। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের সাথে এর মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলে থাকা তিন যাত্রীর মধ্যে চালক মনির ও পেছনে বসা প্রসেনজিৎ প্রাণে বেঁচে যান। মাঝখানে থাকা রমজান নিচে পড়ে গেলে দ্রুত গতির লরি তার বুকের উপর দিয়ে চলে যায়। এতে মারাত্মক আহত হন তিনি।

স্থানীয়রা উদ্ধার করে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ডা. এ এস এম তানজিরুল ইসলাম তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ঘাতক চালক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেলেও লরিটিকে জব্দ করেছে পুলিশ।

দুর্গাপুর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, মরদেহ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হওয়া মাত্রই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

গোপালগঞ্জে সাধারণ ওয়ার্ডে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি

গোপালগঞ্জে সাধারণ ওয়ার্ডে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি
গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ডেঙ্গু রোগীরা। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। ফলে চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বেড দিতে না পারায় ডেঙ্গু রোগীদেরকে হাসপাতালের ফ্লোর ও সাধারণ ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এতে সাধারণ রোগীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে।

শনিবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে এ চিত্র দেখা গেছে।

গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. অসিত মল্লিক জানান, হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত ১৫০ জন রোগী ভর্তি রয়েছে। এর মধ্যে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২৮ জন। হাসপাতালে পৃথক দুইটি ডেঙ্গু সেলে ১৬টি বেড রয়েছে। বাকিদের সাধারণ ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. তরুণ মণ্ডল জানান, গোপালগঞ্জে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় নতুন করে ১১ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট ডেঙ্গু রোগী ২২২ জন। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। ডেঙ্গু রোগীর যথাযথ চিকিৎসা দিতে জেলার সব চিকিৎসকদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

নির্ধারিত সময়ের আগেই ছাড়ছে লঞ্চ

নির্ধারিত সময়ের আগেই ছাড়ছে লঞ্চ
লঞ্চে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ঈদের ছুটি শেষ হওয়ায় পটুয়াখালী থেকে ঢাকাগামী যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়। বিশেষ করে গতকাল শুক্রবার (১৬ আগস্ট) এবং শনিবার (১৭ আগস্ট) লঞ্চগুলোতে যাত্রীদের সব থেকে বেশি চাপ ছিল। যাত্রীদের বেশি চাপ থাকায় নির্ধারিত সময়ের আগেই লঞ্চগুলো ছেড়ে যেতে দেখা যায়। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পটুয়াখালী নদীবন্দরে শনিবার বেলা বারোটা থেকে লঞ্চগুলো ছেড়ে যেতে শুরু করেছে। লঞ্চঘাট থেকে এম ভি প্রিন্স অব রাসেল, এম ভি কাজল ৭, এমভি জামাল ৫,  এমভি কুয়াকাটা ১, এমভি সুন্দরবন ৮সহ মোট সাতটি লঞ্চ ছেড়ে যায়। বাড়তি যাত্রীদের চাপ সামাল দিতে বিআইডব্লিউটিএ-এর পক্ষ থেকে বেশ কয়েকটি অতিরিক্ত লঞ্চ এর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে লঞ্চগুলোর ডেক, কেবিনের করিডোর, লঞ্চের ছাদ থেকে শুরু করে সর্বোত্র যাত্রীদের উপস্থিতি দেখা গেছে।

বছরের অন্য সময় গুলোতে বিকেল পাঁচটা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত লঞ্চগুলো ছেড়ে গেলেও ঈদের ছুটির পর থেকে বেলা বারোটার পর লঞ্চগুলো পটুয়াখালী নদী বন্দর ত্যাগ করেছে।

আগামী দুই থেকে তিনদিন এমন পরিস্থিতি চলবে বলেও জানান পটুয়াখালী নদী বন্দর কর্মকর্তা খাজা সাদিকুর রহমান।

ছুটি শেষে ঢাকায় যাওয়া মানুষদের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে লঞ্চঘাটে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের পাশাপাশি পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছে।

যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে লঞ্চঘাটে পটুয়াখালী পৌরসভার পক্ষ থেকে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র