Alexa

নাফ নদী থেকে ফিরেছেন অপহৃত মাঝিরা

নাফ নদী থেকে ফিরেছেন অপহৃত মাঝিরা

নাফ নদী / ছবি: বার্তা২৪

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, টেকনাফ, বার্তা২৪.কম

কক্সবাজারের নাফ নদী থেকে ট্রলারসহ ফিরেছেন অপহৃত চার মাঝি-মাল্লা। তবে তারা মুক্তিপণের টাকা দিয়ে ফেরত এসেছেন বলে স্থানীয়রা জানালেও মালিকপক্ষ টাকার বিষয়টি অস্বীকার করছেন।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে তারা সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপ জালিয়া পাড়া সংলগ্ন নাফ নদের পাড়ে এসে পৌঁছান বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। পরে সেখান থেকে তারা পায়ে হেঁটে নিজের বাড়িতে চলে যান।

অপহৃত মাঝিরা হলেন- টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ বাজার পাড়ার বাসিন্দা আজিম উল্লাহ মাঝি, মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, আবুল কালাম ও মোহাম্মদ হাসান। এদের মধ্যে মোহাম্মদ হাসান পুরাতন রোহিঙ্গা বলে জানা গেছে।

শাহপরীর দ্বীপ বাজার পাড়া এলাকার বাসিন্দা ট্রলার মালিক আমান উল্লাহ বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘চার মাঝি ফেরত এসেছে বলে শুনেছি। তাদের সঙ্গে আমার দেখা হয়নি। তারা কীভাবে এসেছে তাও জানি ন।’

আরও পড়ুন: মিয়ানমারে অপহৃত মাঝিদের ছাড়তে মুক্তিপণ দাবি

এর আগে মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সকালে আমান উল্লাহর মালিকানাধীন একটি ট্রলারে দ্বীপ সংলগ্ন নাফ নদ এলাকায় চার মাঝি-মাল্লা মাছ শিকারে যায়। এর কিছুক্ষণ পর মিয়ানমারের বিজিপির একটি দল স্পিডবোটে এসে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ট্রলারসহ তাদের ধরে নিয়ে যায়।

ওই দিন সন্ধ্যার দিকে ট্রলার মালিক আমান উল্লাহর কাছে মিয়ানমারের একটি ফোন নম্বর থেকে কল করে ট্রলার ও মাঝি-মাল্লাদের ছাড়িয়ে নিতে মিয়ানমারের ২০ লাখ কিয়াট দাবি করা হয়। যদি দাবিকৃত টাকা পরিশোধ করা হয় তাহলে ট্রলারসহ মাঝি-মাল্লাদের ফেরত দেওয়া হবে। দাবিকৃত টাকা পরিশোধের জন্য বুধবার পর্যন্ত সময় নেয় মালিক।

এ প্রসঙ্গে সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ফজলুল হক বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘মিয়ানমারে নিয়ে যাওয়া চার জেলে ফিরে এসেছে বলে শুনেছি। তবে কীভাবে ফেরত এসেছে তা জানি না।’

জেলা এর আরও খবর